রোহিঙ্গাদের শান্তিপূর্ণ ও টেকসই প্রত্যাবাসন চায় বাংলাদেশ: স্পিকার

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, মিয়ানমারকে সুনির্দিষ্ট ফ্রেমওয়ার্ক অনুসরণের মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, শান্তিপূর্ণ ও টেকসই প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে হবে। প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া দ্রুততর সময়ে বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে তিনি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরো কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানান।

স্পিকার আজ জাতীয় সংসদে তাঁর কার্যালয়ে মানবাধিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন গবেষক Dr. Maung Zarni এর নেতৃত্বে আট সদস্য বিশিষ্ট এক প্রতিনিধিদলের সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে এসব কথা বলেন।

স্পিকার বলেন, বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক ও দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের দ্রুত ও শান্তিপূর্ণ প্রত্যাবর্তন চায়। রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশ অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে- প্রয়োজন মিয়ানমারের আন্তরিকতা। তিনি রোহিঙ্গাদের পূর্ণ নাগরিকত্ব ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করে মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তনে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অনুরোধ জানান।

ড. শিরীন শারমিন বলেন, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে মিয়ানমারের সাথে আলোচনা অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের সাথে স্বাক্ষরিত চুক্তির প্রতি সম্মান রেখে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও শান্তিপূর্ণ প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

স্পিকার আরো বলেন, সম্প্রতি জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তেনিও গুতেরেস, বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিমসহ আন্তর্জাতিক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ইতমধ্যে সরেজমিনে রোহিঙ্গাদের অবর্ননীয় দূঃখ-দুর্দশা পরিদর্শন করে গেছেন। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন সম্ভব হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

প্রতিনিধিদলের অন্যান্য সদস্য হলেন Michael Charney, মানবাধিকার কর্মী রাজিয়া সুলতানা, Khin Mai Aung, রোহিঙ্গা বিষয়ক আইনবিদ নুরুল ইসলাম, Michimi Muranushi, Doreen Chan প্রফেসর ফ্রেডরিক জন প্যাকের Frederick Jhon Packer প্রমূখ।

প্রিন্স, ঢাকা  নিউজ২৪