মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে হবে: মোজাম্মেল

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, আমাদের শ্রেষ্ঠতম অর্জন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে হবে, ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করতে হবে। আজ মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতার ডাকে জীবন বাজি রেখে মুক্তিযোদ্ধারা দেশ স্বাধীন করেছেন। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে ঘাতকরা এদেশকে মিনি পাকিস্তান বানিয়েছিল। মুক্তিযোদ্ধারা দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান। মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্বপূর্ণ ইতিহাস নতুন প্রজন্মকে জানাতে হবে এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার তাদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদানের পরিধি বাড়াচ্ছে। মুক্তিযোদ্ধারা বর্তমানে দুই ঈদে দুটি বোনাস পেলেও এ অর্থবছর তারা আরো ২টি বোনাস পেতে যাচ্ছেন। মহান বিজয় দিবস এবং বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে দু’টি বোনাস দেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, সব মুক্তিযোদ্ধার মুক্তিযুদ্ধকালীন বক্তব্য রেকর্ড করে আজীবন তা সংরক্ষণের ব্যবস্থা করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। আগামী মাস থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের বিনা খরচে চিকিৎসা ও ওষুধ সুবিধা প্রদান করবে সরকার। মৃত্যুর পরে সব মুক্তিযোদ্ধার কবর একই ডিজাইনে করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপও গ্রহণ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, দেশের সব যুদ্ধক্ষেত্র ও গণহত্যার বদ্ধভূমিতে একই ডিজাইনে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করা হবে।

উল্লেখ্য, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ‘উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ প্রকল্প’-এর আওতায় দেশের সব উপজেলায় একটি করে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণ করছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের তত্ত¡াবধানে পৌনে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়িত পাঁচতলা ফাউন্ডেশনের উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স-এর তিনতলা ভবনের প্রথম ও দ্বিতীয় তলায় বিপণী বিতান এবং তৃতীয় তলায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কার্যালয় থাকছে।

প্রিন্স, ঢাকা নিউজ২৪