দেশে এইডস রোগী ৪৬৬২ জন, এরমধ্যে ৬৩ জন রোহিঙ্গা:স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম

নিউজ ডেস্কঃ স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সংসদকে জানিয়েছেন, ২০১৭ সালের অক্টোবর পর্যন্ত ৫ হাজার ৫৮৬ জন রোগীকে এইচআইভি পজিটিভি হিসাবে শনাক্ত করা হয়েছে, যার মধ্যে ৯২৪ জন মারা গেছেন। অবশিষ্ট ৪ হাজার ৬৬২ জন রোগী এখন আমাদের দেশে বসবাস করছেন, যাদের মধ্যে ৬৩ জন রোগী রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের।

বুধবার সংসদে প্রশ্নোত্তরে চট্টগ্রাম-১১ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরীর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য দেন।

সংরক্ষিত আসনের সদস্য ফিরোজা বেগমের (চিনু) প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ নাসিম জানান, ঝুঁকিপূর্ণ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসমূহ পুনঃনির্মাণে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে ৪র্থ এইচপিএনএসপি এর পিএফডি ওপির আওতায় ২০টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পুনঃনির্মাণ কাজ, ৫৫টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স উন্নীতকরণ কাজ, ১০০টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ পুনঃনির্মাণ কাজ, ৫০টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র উন্নীতকরণ কাজ এবং ২০০০টি কমিউনিটি ক্লিনিক পুনঃনির্মাণ কাজের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে এবং যা পর্যায়ক্রমে প্রক্রিয়াধীন আছে।

ফেনী-১ আসনের জাসদের সংসদ সদস্য শিরীন আখতারের প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ নাসিম সংসদকে জানান, উপজেলা পর্যায়ে বসবাসরত দরিদ্র সাধারণ জনগণকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের দ্বারা চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে প্রত্যেকটি উপজেলায় ইতোমধ্যে ১০টি করে জুনিয়র কনসালটেন্ট (মেডিসিন/সার্জারী/গাইনি এন্ড অবস/এ্যানেসথেসিয়া/শিশু/নাক, কান, গলা/হৃদরোগ/অর্থোপেডিক্স/চক্ষু/চর্ম/ ও যৌন) পদ সৃষ্টি করা হয়েছে এবং উক্ত সৃষ্টিকৃত পদগুলোতে পর্যায়ক্রমে জনবল পদায়ন করা হচ্ছে।

নোয়াখালী-২ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংদ সদস্য মোরশেদ আলমের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রতিটি বিভাগীয় শহরে একটি করে শিশু হাসপাতাল স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় বিভাগীয় শহর চট্টগ্রামে বিশেষায়িত শিশু হাসপাতাল নির্মাণ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

সিলেট-৫ আসনের জাতীয় পার্টির (জাপা) সংসদ সদস্য সেলিম উদ্দিনের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, দেশের প্রতিটি বিভাগীয় শহরে একটি করে হৃদরোগ এবং কিডনি হাসপাতাল স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে। তবে উক্ত হাসপতালদ্বয় নির্মাণ ব্যয় ও সময় সাপেক্ষ। তাই বর্তমান সরকার দেশের হৃদরোগীদের চিকিৎসা সহজলভ্য করতে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সিসিইউ, ক্যাথ ল্যাব স্থাপন ও কার্ডিয়াক সার্জারি (আধুনিক হৃদরোগ ইউনিট স্থাপন) বিভাগ চালু করেছে এবং পর্যায়ক্ররেম সকল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আধুনিক হৃদরোগ ইউনিট স্থাপনের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

খুলনা-৪ আসনের এস. এম মোস্তফা রশিদীর প্রশ্নের জবাবে নাসিম সংসদকে জানান, দেশে সরকার অনুমোদিত ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ৮৫১টি। এরমধ্যে অ্যালোপ্যাথিক ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ২৬৬টি, ইউনানী ২৬৭টি, আয়ুর্বেদিক ২০টি, হোমিওপ্যাথিক ৭৯টি ও হার্বাল ৩২টি। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার জিএমপি (গুড ম্যানুফ্যাকচারিং প্রাকটিস) গাইড লাইন যথাযথভাবে অনুসরণ না করায় এবং মানবহির্ভূত ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এ পর্যন্ত ৮৬টি ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স সাময়িক বাতিল এবং ১৯টির লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে।