ব্যাংকিং সেবার আওতায় চসিকের ৯০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে ব্যাংকিং সেবা প্রদান করতে যাচ্ছে প্রিমিয়ার ব্যাংক লি.। এ লক্ষ্যে গত ৬ জুন কর্পোরেশন ও প্রিমিয়ার ব্যাংকের মধ্যে ১টি সমঝোতা স্মারক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই সেবার আওতায় কর্পোরেশন পরিচালিত ৯০ টি স্কুল ও কলেজের টিউশন ফি প্রিমিয়ার ব্যাংকের মাধ্যমে জমা দেয়া যাবে। এ জন্য স্কুলগুলোতে ফি সংগ্রের জন্য ৯০টি বুথ স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকগণ একটি সঞ্চয়ী হিসাব খোলার মাধ্যমে সরাসরি ১টি হিসাব থেকে সহজেই এই ফি প্রদান করতে পারবেন।

আগামী ১ জুলাই থেকে এ কার্যক্রম শুরু হবে। গতকাল রোববার দুপুরে কর্পোরেশনের আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ও প্রিমিয়ার ব্যাংক লি. এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানা যায়। সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম ম নাছির উদ্দীন। অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, প্রিমিয়ার ব্যাংকের উপদেষ্টা মোহাম্মদ আলী, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল জব্বার চৌধুরী, হেড অব রিটেইল বিজনেস মো. শামীম মোরশেদসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত আছে। কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের প্রতিষ্ঠানের টিউশন ফি সহ অন্যান্য ফি এখন স্ব-স্ব উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সংগ্রহ করে। প্রিমিয়ার ব্যাংক ও চসিক এর এ চুক্তির ফলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে হিসেব নিকেশের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ফিরে আসার পাশাপাশি শিক্ষার্থী-শিক্ষকরা প্রসেসিং ফি ছাড়া আরো বেশ কিছু ব্যাংকিং সুযোগ সুবিধা পাবে। তিনি বলেন, প্রিমিয়ার ব্যাংকের শিক্ষাবৃত্তি প্রদানের উদ্যোগ গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় মনযোগী, পরীক্ষায় ভাল ফলাফল অর্জনে প্রনোদনা জোগাবে।

উল্লেখ্য প্রিমিয়ার ব্যাংক লি. চুক্তির অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৫০ জন গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করবে। তাছাড়া প্রতি বছর ৫টি স্কুলে নতুন করে ৫টি মাল্টিমিডিয়া শ্রেণি কক্ষ স্থাপন করবে। এর ফলে কর্পোরেশনভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহ ডিজিটাইলজে পদার্পণ করবে।

প্রিন্স, ঢাকা