জয়মনি টর্নেডোর ছোবলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে শাকিল খাঁন

বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের মংলায় জয়মনি টর্নেডোর ছোবলে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়েছে চিত্র নায়ক শাকিল খানঁ। ঘটনার কয়েকদিন পার হলেও অসহায় ওই পরিবার গুলো এখনও পায়নী সরকারী কোন সহায়তা। আজও খোলা আকাশের নিচে এখনও অনেক পরিবার ছেলে-মেয়ে নিয়ে বসবাস করছে।

শুক্রবার (২২ জুন) দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা থেকে মংলার জয়মনির ঘোল এলাকায় এসকল গৃহ হারা মানুষদের দেখতে আসেন চিত্র নায়ক শাকিল খাঁন। তবে কোন ত্রান তৎপরতা না থাকায় অনেকেই মনে কষ্ট নিয়ে ফিরে গেছেন বলে জানা গেছে। তার পরেও তিনি গরিব ও অসহায় মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে সহায়তার জন্য আবেদন করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন নায়ক শাকিল।

স্থানীয়রা জানান, গত ১৮ জুন সোমবার সকাল থেকে প্রচন্ড তাপদাহে পুড়ছিলেন সবাই। দুপুরে তাপদাহ বৃদ্ধি পাওয়ায় স্বস্তির জন্য ঘরের বাইরে বিভিন্ন গাছের নিচে অবস্থান নেয় এলাকার অনেক বাসিন্দরা। বিকাল সাড়ে ৪ টায় হঠাৎ মেঘাছন্ন হয়ে পড়ে সুন্দরবন সংলগ্ন পশুর নদীর তীরবর্তী এলাকা। ওখানকার মানুষ গুলো কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই প্রলয়ংকারি টর্নেডো আঘাত হানে জয়মনির ঘোল এলাকায়। একই সাথে প্রায় ৩০মিনিট বৃস্টি ও একের পর এক বর্জ্যপাত কেঁপে ওঠে আশপাশের এলাকা।

আর টর্নেডোর ছোবলে মুর্হুতেই একে একে লন্ডভন্ড হয়ে যায় চিলা ইউনিয়নের জয়মনির ঘোল, গিলার খালকুল, কাটা খালী, খাপড়া, পশ্চিম পাড়া গ্রাম। মাত্র ৪৫ সেকেন্ডের স্থায়ীত্ব এ টর্নেডোর আঘাতে স্কুল, মসজিদ, মাদ্রাসা, কাচা-পাকা ঘর বাড়ি, দোকান পাট উড়িয়ে নেয়। পরে ১৯ জুন দুপুরে ঠিক একই রকম আবারো টনেডো হয় ওই এলাকায়, এতেও প্রায় শতাধিক ঘরবাড়ী বির্ধস্ত হয়।

টর্নেডোর পর পরই উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রবিউল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান আকবর গাজী সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করে তাদের সহায়তার আশ্বাস দিলেও এখনও কোন সরকারী ভাবে ত্রান সামগ্রী বা ঘর তৈরী ব্যাবস্থা হয়নী। চিত্র নায়ক শাকিল খানঁ জানায়, জয়মনি ঘোল এলাকায় পর পর দ’দিন টর্নেডোর আঘাতে প্রায় সাড়ে ৩শতাধিক ঘরবাড়ী হারা ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ এখনও খোলা আকাশের নিচে।

আমি ঢাকায় গিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করবো এসকল গরিব ও অসহায় মানুষ গুলো যেন পুনরায় গৃহ নির্মান করে সাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারে সে জন্য চেষ্টা করবে বলেও জানায় তিনি। এছাড়াও তিনি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মংলা-রামপাল (বাগেরহাট-৩) আসনে নির্বাচন করারও আশা প্রকাশ করেন এবং সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন চিত্র নায়ক শাকিল খানঁ।

অন্যদিকে, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায় কর্মকর্তা মোঃ নাহিদুজ্জামান বলেন, জয়মনির ঘোল এলাকায় টনেডোর আঘাতে ২০৫টি পরিবার আংশিক ক্ষতি হয়েছে এবং ১২০টি পরিবার তাদের সর্বোচ্ছ হারিয়ে পুরো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যারাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্ধ করা হয়েছে।

এছাড়াও গৃহ নির্মানে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ দেয়া হবে ওখানকার ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য। জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও মংলা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ইদ্রিস আলী, সোনাইলতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ ফরিদ শেখ, পৌর আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ হাবিবুর রহমান,ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম ও অলিয়ার রহমান সহ আওয়ামীলীগ ও যুব লীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ১৮ জুন সুন্দরবন সংলগ্ন পশুর নদীর তীরবর্তী চিলা ইউনিয়নের পর পর দু’দিনে টর্নেডোর ছোবলে ৭ গ্রাম লন্ডভন্ড হয়ে যায়। এতে সাড়ে ৩ শতাধিক কাচা ও পাকা ঘর বাড়ি বিধ্বস্ত হয়। উপড়ে পড়েছে অসংখ্য গাছ পালা ও বৈদ্যুতিক পিলার । এ সময় বজ্রপাতে এক মহিলাসহ ৩ জন আহত ও এক জেলে নিহত হয়।

প্রিন্স, ঢাকা