বিশ্বকাপের সেরা ১০ হ্যাটট্রিক

নিউজ ডেস্ক : রাশিয়া বিশ্বকাপের দ্বিতীয় দিনেই নিজেদের প্রথম ম্যাচে হ্যাটট্রিক করে ফেললেন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। স্পেনের বিপক্ষে দুর্দান্ত পারফর্ম্যান্স করে ৩-৩ গোলে পর্তুগালকে ড্র এনে দিয়েছেন তিনি। বিশ্বকাপের এটা ৫১তম হ্যাটট্রিক। এর আগে আরও ৫০ জন হ্যাটট্রিক করেছেন বিশ্বকাপের আসরে। গত বিশ্বকাপেই এসেছিল দুটি হ্যাটট্রিক। এই বিশাল তালিকা থেকে সেরা ১০ হ্যাটট্রিকের ঘটনার দিকে নজর দেওয়া যাক:

এডমন্ড কোনেন: ১৯৩৪ ইতালি বিশ্বকাপে খেলা চলছে বেলজিয়াম বনাম জার্মানির। দ্বিতীয়ার্ধ ফল ২-২। সেই সময়ে জ্বলে ওঠেন কোনেন। পরবর্তী ২১ মিনিটে হ্যাটট্রিক করে জার্মানিকে ৫-২ গোলে জেতান তিনি।

আর্নেস্ট উইলিমস্কি: ১৯৩৮ সালে ফ্রান্স বিশ্বকাপ। খেলা চলছিল ব্রাজিল এবং পোল্যান্ডের মধ্যে। আসলে খেলা যেন চলছিল ব্রাজিলের ১১ জনের বিপক্ষে আর্নেস্ট উইলিমস্কির। একাই ৪ গোল করেন তিনি। ম্যাচটি যদিও ৬-৫ গোলে হেরে যায় পোল্যান্ড।

থিওডর ওয়্যাগনার: বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল। ১৯৫৪ সাল। অস্ট্রিয়া, সুইজারল্যান্ডের সেই ম্যাচের ভাগ্য যেন পেন্ডুলামের মতো দুলছিল। অস্ট্রিয়ার হয়ে হ্যাটট্রিক করে পিছিয়ে থাকা ম্যাচে দেশকে ৭-৫ গোলে জেতান ওয়্যাগনার।

জাস্ট ফন্টেন: ১৯৫৮ সুইডেন বিশ্বকাপের তৃতীয় স্থান নির্ণয়ের ম্যাচ। খেলা সেই সময়ের পশ্চিম জার্মানি এবং ফ্রান্সের মধ্যকার। ৬-৩ গোলে ম্যাচ জেতে ফ্রান্স। একাই ৪ গোল করেন ফন্টেন।

পেলে: ১৯৫৮ সালে ফ্রান্স বনাম ব্রাজিলের সেমিফাইনালে হ্যাটট্রিক করে বসেন ‘কালো মানিক’ পেলে। ব্রাজিল কিংবদন্তির হ্যাটট্রিকে ৫-২ গোলে উড়ে যায় ফ্রান্স।

ইউসেবিও: ১৯৬৬ সালে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ। কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলে পিছিয়ে পর্তুগাল। এর পরেই জ্বলে ওঠেন ইউসেবিও। হ্যাটট্রিক করে দলকে জেতান ৫-৩ গোলে।

জিওফ হার্স্ট: ১৯৬৬ সালে হাই ভোল্টেজ ফাইনাল। মুখোমুখি ইংল্যান্ড, পশ্চিম জার্মানি। এক গোলে পিছিয়ে ইংল্যান্ড। এর পরেই শুরু হার্স্ট ম্যাজিক। তাঁর হ্যাটট্রিকের সুবাদে ৪-২ গোলে বিশ্বকাপ জেতে ইংল্যান্ড।

ইগর বেলানভ: ১৯৮৬ সালের মেক্সিকো বিশ্বকাপের শেষ ষোলোর খেলা। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের সঙ্গে খেলা বেলজিয়ামের। ওয়ান ম্যান শোয়ে হ্যাটট্রিক করেন বেলানভ। দুই বার এগিয়ে দিয়েও অবশ্য সোভিয়েত ইউনিয়নকে সে দিন জেতাতে পারেননি তিনি।

ওলেগ সালেঙ্কো: ১৯৯৪ সালের আমেরিকা বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্যায়ের ম্যাচ। খেলা চলছিল ক্যামরুন বনাম রাশিয়ার। বা বলা ভাল খেলা চলছিল ক্যামেরুন ডিফেন্স বনাম ওলেগ সালেঙ্কোর। একাই পাঁচবার ক্যামেরুনের জালে বল জড়ান তিনি। ৬-১ গোলে ম্যাচ জেতে রাশিয়া।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো: চলতি বিশ্বকাপের প্রথম হ্যাটট্রিক এল সি আর সেভেনের পা থেকে। স্পেনের বিপক্ষে একাই খেললেন, গোলও করলেন। ২-৩-এ পিছিয়ে থাকা ম্যাচে ৩-৩ গোলে ড্র করল পর্তুগাল।

বিশ্বকাপে দুইবার করে হ্যাটট্রিকের রেকর্ড রয়েছে গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা (আর্জেন্টিনা), গার্ড মুলার (জার্মানি), জাস্ট ফন্টেন (ফ্রান্স), স্যান্ডোর কক্সিসের (হাঙ্গেরি)। এছাড়াও বিশ্বকাপে হ্যাটট্রিক করেছেন বার্ট পাতেনুয়েদ, গিলেরমো স্তাবাইল, পেড্রো সিয়া, অ্যাঞ্জেলো শিয়াভিয়ো, অলড্রিচ নেজেডলি, লিওনিডাস, গুস্তভ ওয়াটারস্টর্ম, হ্যারি অ্যান্ডারসন, অস্কার মিগুয়েজ, অ্যাডেমির, এরিখ প্রোবস্ট, কার্লোস বর্জেস, বুরহান সার্গিন, ম্যাক্স মরলক, থিওডর ওয়াগনার, জোসেফ হিউগি, ফ্লোরিয়ান অ্যালবার্ট, দুসান বায়েভিচ

অ্যান্দ্রেজ জার্ম্যাক, রব রেনসেনব্রিঙ্ক, তেওফিলো কুবিলাস, ল্যাসলো কিস, কার্ল-হেঞ্জ রামিনিগে, জিগনিউ বনিয়েক, পাওলো রসি, প্রেবেন আলকাজার, গ্যারি লিনেকার, ইগর বেলানভ, এমিলিও বুত্রাগুয়েনো, মিচেল, টমাস স্কুর্যা ভি, মিরোস্লাভ ক্লোজে, পাওলেতা, গঞ্জালো হিগুয়াইন, টমাস মুলার, জের্ডান শাকিরিরও হ্যাটট্রিক রয়েছে।