খাপ্পা বাহিনীর দুই সদস্য আটক

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি: সিলেটের গোলাপগঞ্জে একটি মার্কেটে ভ্যানেটি ব্যাগের টাকা স্বর্ণ-লংকার অভিনব কায়দায় লুটের ঘটনায় আন্তঃজেলা খাপ্পা বাহিনীর দুই সদস্যকে ব্যবসায়ীরা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করছে। তারা দু’জন স্বামী-স্ত্রী। আটককৃতরা জকিগঞ্জ উপজেলার বারোহাল ইউপির কোনাগ্রাম এলাকার বারোহাল ইউপি সদস্য সালাম সোবহান (৪৫) ও তার স্ত্রী রোকিয়া বেগম (৩৮)। তাদের বিরুদ্ধে সিলেট জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ভ্যানেটি ব্যাগ খাপ্পা মারা, চুরি, ডাকাতিসহ বিভিন্ন প্রতারণা মামলা রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল শুক্রবার বার দুপুর দুইটা ২৭ মিনিটের সময় আটককৃত বারোহাল ইউপি সদস্যের স্ত্রী রোকিয়া তার অজ্ঞাত মেয়ে (২২)সহ আন্তঃজেলা প্রতারক চক্রের মহিলা সদস্যরা গোলাপগঞ্জ পৌর সদরের অভিযাত শপিংমল এ ওয়াহাব প্লাজার কিডস্ ক্লাব দোকানে ক্রেতা সেজে মা-মেয়ে ডুকে।

এসময় আটককৃত নারী রোকিয়া ও তার মেয়ে কাষ্টমারদের ভীড়ে ৪টি ভ্যানেটি ব্যাগ অভিনব কায়দায় চুরি করে। ৪র্থ ব্যাগ কৌশলে চুরি করার সময় সাইমুন্নাহার চৌধুরী নামে এক ক্রেতা দেখেন তার ভ্যানেটি ভ্যাগের চেইন খোলা। টের পেয়ে তাড়া হুড়া করে ঐ চক্রের সদস্য হাজী আসিদ আলী নামে আরো একটি অভিযাত মার্কেটে ডুকে। এসময় এ ওয়াহাব প্লাজার কিডস্ ক্লাব দোকানে ঈদের শপিং করতে আসা ওই মহিলা তার ভ্যানেটি ব্যাগ খুলে দেখেন সোনার বক্স ও ৭হাজার টাকা নেই।

পরে তিনি দোকানের মালিক ছালেহ আহমদকে বিষয়টি জানান। দোকান কর্তৃপক্ষ সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ দেখে প্রতারক চক্রের ওই সদস্যদের শনাক্ত করে এবং ক্যামেরার দৃশ্য দেখে বিভিন্ন মার্কেটে লোক পাঠিয়ে হাজী আসিদ আলী মার্কেট থেকে রোকিয়াকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

লুট করে নিয়ে যাওয়া মালামাল উদ্ধার করতে না পারায় শপিং করতে আসা মহিলার স্বামী বিয়ানীবাজার থানার চারখাই ইউপির নাটেশ্বর গ্রামের মৃত সিরাজ উদ্দিনের ছেলে রেহান উদ্দিন (৩৯) বাদী হয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় আটককৃত স্বামী স্ত্রীসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জন মহিলাকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলায় ওই মহিলার স্বামী উল্লেখ করেন ভ্যানেটি ব্যাগে ১ জোড়া কানের দুল দেড় ভরি,১টি হাতের বেসলাইট আট আনা,৩টি আংটি ১২ আনা,সর্বমোট নগদ ৭হাজার টাকাসহ ১লাখ ৩৬হাজার টাকার মালামাল ছিল।

ওই সোনাগুলো ওয়াশ করার জন্য তার স্ত্রী বাড়ী থেকে নিয়ে আসছিলেন। আটককৃত মহিলা বারোহাল ইউপি সদস্য সালাম সোবহানের স্ত্রী রোকিয়া বেগমের সিলেটের বিভিন্ন থানায় ৫/৬টি এরকম প্ররণা মামলা রয়েছে। পুলিশ রোকিয়ার কাছ থেকে ২৫ টুকরো ব্লেইট উদ্ধার করছে। এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি একেএম ফজলুল হক শিবলীর সাথে আলাপ করা হলে তিনি আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন তাদের আদালতে মাধ্যমে রিমান্ডে আনা হবে। তারা স্বামী স্ত্রী আন্তঃজেলা প্রতারক চক্রের সদস্য। তাদের অনেক বড় সিন্ডিকেট রয়েছে। পুলিশ কৌশলে রোকিয়ার স্বামীকে আটক করে।

প্রিন্স, ঢাকা