পিয়াস হত্যা মামলায় এক জনের মৃত্যুদন্ড

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ায় ছাত্রলীগ নেতা শাহরুখ খান ওরফে পিয়াস হত্যা মামলায় একজনকে মৃত্যুদন্ড এবং অপর দুই আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডসহ অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুর ১২টায় কুষ্টিয়ার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী জনাকীর্ন আদালতে এই রায় ঘোষণা করেন।

আদালত রায়ে আসামি টুটুল হোসেন (৩৮) কে মৃত্যুদন্ড এবং আশরাফুল ইসলাম (৩৪) ও মোশারফ (৩৩) নামে অপর দুই আসামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন। রায় ঘোষণার সময় তিন আসামিই আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এ মামলার সরকারী কৌশুলী পিপি এ্যাড.অনুপ কুমার নন্দী জানান, ২০১৫ সালের ১০ জুলাই বিকেলে কুষ্টিয়া শহরের হরিশংকপুর এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে ছাত্রলীগ নেতা শাহরুখ খান ওরফে পিয়াসকে গুলি করেন তিন যুবক। আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৩ জুলাই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের পিতা আবুল কালাম আজাদ বাদি হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে তিন আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে ২০১৬ সালের জুনে আদালতে চার্যশীট দাখিল করেন পুলিশ। বিজ্ঞ আদালত দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে আজ এই রায় প্রদান করেছেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন-সদর উপজেলার মোল্লাতেঘরিয়া এলাকার মৃত কাশেম মোল্লার ছেলে টুটুল হোসেন, লাহিনী ক্যানেলপাড়ার আব্দুল হামিদের ছেলে আশরাফুল ইসলাম ও জুগিয়া এলাকার মোশারফ হোসেন। এ মামলার রায়ে আসামী টুটুল হোসেনকে মৃত্যুদন্ড এবং অপর দুই আসামী আশরাফুল ইসলাম ও মোশারফ হোসেনকে যাবজ্জীবন কারারদন্ড দেন আদালত। এ রায়ে নিহত পিয়াসের পরিবার সন্তোষ প্রকাশ করেছেন বলেও উল্লেখ করেন পিপি।

প্রিন্স, ঢাকা