খালেদার জামিনের মেয়াদ বাড়ল

নিউজ ডেস্ক: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টে দুর্নীতির অভিযোগে করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ ২৮ জুন পর্যন্ত বাড়িয়েছেন আদালত।

সোমবার মামলার শুনানিতে খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে তার আইনজীবীরা আবেদন করলে ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ ২৮ জুন পর্যন্ত বৃদ্ধি করেন। একইসঙ্গে ওইদিন মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন আদালত।

এদিন আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে এ মামলার জারি করা হাজিরা পরোয়ানা প্রত্যাহারে তার আইনজীবীরা আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত ১০ মে এই মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের জন্য শুনানির দিন ধার্য ছিল। তবে সেদিন খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়ার বাড়ানোর আবেদন করেন তার আইনজীবী। পাশাপাশি খালেদা জিয়া আদালতে হাজির না হওয়ায় যুক্তিতর্কের শুনানি পেছানোর আবেদনও করা হয়। এসব আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক ৪ জুন যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের জন্য শুনানির নতুন দিন ধার্য করেন এবং এইদিন পর্যন্ত খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদও বৃদ্ধি করেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট এই মামলা করে দুদক।

চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াসহ মোট আসামি চারজন। অপর তিন আসামি হলেন— খালেদা জিয়ার তৎকালীন রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর তৎকালীন একান্ত সচিব বর্তমানে বিআইডব্লিউটিএ-এর নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।