অন্তসত্ত্বা স্ত্রী হত্যায় স্বামী-শাশুড়ি গ্রেফতার 

নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীর ডিমলায় নয় মাসের এক অন্তসত্ত্বা গৃহবধুকে যৌতুকের কারনে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় স্বামী-শাশুড়ি সহ ২জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহতে পরিবার সুত্রে জানা গেছে, উপজেলা নাউতারা ৪ নং ওয়ার্ডের ভাটিয়া পাড়া গ্রামের মজিবর রহমানের পুত্র রেজাউলের সাথে একই ইউনিয়নের আকাশকুড়ি উদ্দিনের কন্যা কোকিলা(২৪)এর ২০১১সালে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় ।বিয়ের পর হতে কোকিলার স্বামী রেজাউল ও শাশুড়ি রেজিয়া যৌতুকের জন্য বিভিন্ন অজুহাতে কোকিলাকে অমানবিক নির্যাতন করত । এর মাঝে বিয়ের দুবছর পরে তাদের কোলজুড়ে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। তার নাম রুমানা, বর্তমান বয়স ৩বৎসর ।
শুক্রবার বিকেলে কোকিলার সাথে তার শাশুড়ি ও স্বামীর সাথে যৌতুকের বিষয় নিয়ে ঝগড়া বাধে।

ঝগড়ার সুত্র ধরে ভোর রাতে প্রতি দিনের মত ভোর রাতে কোকিলাসহ স্বামীর বাড়ীর লোকজন সেহেরি খেতে উঠে। এ সময় নয় মাসের অন্তসত্ত্বা কোকিলাকে বিকেলের ঝগড়ার জের ধরে স্বামী, শাশুড়ি ও শশুরবাড়ির অন্যান্য লোকেরা বেধড়ক মারপিট করে হত্যা করেন । খবর পেয়ে সকালে ডিমলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কোকিলার স্বামী রেজাউল ও শাশুড়ী রেজিয়াকে গ্রেফতার করে এবং কোকিলার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠায়। ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ ঘটনা সম্পর্কে এই প্রতিবেদককে বলেন, এ ঘটনায় নিহত গৃহবধুর পিতা বাদী হয়ে মামলা নং-৪,তারিখ-২/৬/২০১৮ইং দায়ের করেছেন। আমরা এই মামলার ১ও২ নম্বর আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি ।

প্রিন্স, ঢাকা