এতিমদের সঙ্গে বিএনপির নেতাদের ইফতার

নিউজ ডেস্ক: পবিত্র রমজান উপলক্ষে প্রতি বছর ইফতার মাহফিল আয়োজন করে বিএনপি। আর এসব ইফতার মাহফিলে উপস্থিত থাকতেন দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদ জিয়া। তবে এবার খালেদা জিয়া কারাগারে থাকায় তাকে ছাড়া প্রথম ইফতার করেছে দলটি। তবে তাঁর সম্মানে মঞ্চে খালেদা জিয়ার আসনটি ফাঁকা রাখেন নেতারা। গতকাল শুক্রবার রমজানের প্রথমদিন লেডিস ক্লাবে ওলামা মাশায়েখ ও এতিমদের সম্মানে ইফতারের আয়োজন করে দলটি। ইফতারে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ সিনিয়র নেতারা।

ফখরুল বলেন, প্রতি বছর দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া আমাদের মাঝে নেই। আজকে এই সময়ে তিনি কারাগারে, প্রত্যেক বছর তিনি এই ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদেরকে নিয়ে এখানে ইফতার করতেন। আজকে কারাগারের অন্ধকারে একেবারে নির্জনে, তিনি আজকে তার প্রথম রমজানের ইফতার করবেন। এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত মর্মান্তিক। আমরা আল্লাহর কাছে চাইব তিনি যেন অতি দ্রুত আমাদের মাঝে তাকে ফিরিয়ে দেন। তিনি বলেন, আমরা এক কঠিন সময় পার করছি, যে সময়টা এই দেশের জন্য জাতির জন্যে অত্যন্ত ক্রান্তিকাল। এই সময় যদি আমাদের অত্যন্ত ধৈর্য্য সাহস, বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে মোকাবিলা করে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হবে। দেশনেত্রীকে মুক্ত করে ফিরিয়ে আনতে হবে।

ইফতার মাহফিলে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বক্তব্য দেওয়ার কথা ছিল। তবে বাংলাদেশের ইফতারের সময় লন্ডনে জুম্মার নামাজ থাকায় তিনি বক্তব্য দিতে পারেননি বলে জানান মির্জা ফখরুল। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে আসা শতাধিক এতিম ছেলে-মেয়ে উপস্থিত ছিলেন। এসময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।