পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত নির্বাচনে সহিংসতায় নিহত ১২

নিউজ ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে সহিংসতার শিকার হয়ে গতকাল সোমবার ৬ জেলায় ১২ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক গোলাগুলি ও বোমাবাজির ঘটনা ঘটেছে।

এছাড়া ভোটদানে বাধা, ব্যালট ছিনতাই, এজেন্টদের ঢুকতে বাধা দেওয়া, ব্যালটে জোর করে সিল মেরে ভোট দেওয়া এবং ব্যালট বাক্স খুলে নেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। এসব ঘটনার প্রতিবাদে কলকাতায় পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচনে কমিশনের সামনে অবস্থানে বসেছে সিপিএম নেতৃত্ব। এছাড়া বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি- কংগ্রেসও।

সিপিএম, বিজেপি ও কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে— বোমাবাজি, গুলিবর্ষণ, মারধর, বুথ দখল দিয়েই সোমবার শুরু হয় পঞ্চায়েত নির্বাচন। তবে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জির দাবি, পুরোটাই বিরোধী বিজেপি, কংগ্রেস এবং সিপিএমের নির্বাচন ভণ্ডুল করার চেষ্টা ছিল।

তিনি বলেন, রাজ্যে শান্তিপূর্ণভাবেই ভোটদান হয়েছে। কয়েকটি জায়গায় ছোটখাটো ঝামেলা হয়েছে। নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। জানা গেছে, মেদিনীপুরের নন্দীগ্রামের খোদামবাড়িতে গুলিবিদ্ধ হয়ে দুই সিপিএম কর্মী নিহত হয়।