মাদকসেবীকে কারাদণ্ড দিল ভ্রাম্যমান আদালত

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের নলডাঙ্গায় মাদক বিক্রয় ও সেবনের দায়ে উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন নুকুল ও যুগ্ন সম্পাদক তৌহিদুর রহমান লিটন সহ ১৬ মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।১৩ মে রবিবার সন্ধ্যা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত নলডাঙ্গা উপজেলায় বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

পরে রাতেই আটককৃতদের ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুমীত সাহার আদালতে হাজির করলে বিচারক আটককৃতদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।আনোয়ার হোসেন নুকুল উপজেলার ছাতারভাগ ডাকাতিভিটার মৃত খায়রুল ইসলাম কারুর ছেলে ও নলডাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ও তৌহিদুর রহমান লিটন উপজেলার বিপ্রবেলঘরিয়া এলাকার তোতা মিয়ার ছেলে ও নলডাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন সম্পাদক।

র‌্যাব-৫ এর সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার (ভারপ্রাপ্ত) এএসপি আজমল হোসেন জানান,গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুমীত সাহা ও র‌্যাব ৫ এর সিপিসি ৫ এর একটি দল নলডাঙ্গা উপজেলার বিভিন্ন মাদক বিক্রয় ও সেবনের এলাকায় অভিযান চালায় তারা। এ সময় মাদক বিক্রয় ও সেবনের সময় নলডাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন নুকুল ও যুবলীগের যুগ্ন সম্পাদক তৌহিদুর রহমান লিটন সহ ১৬ জন মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীকে আটক করা হয়।

পরে রাতেই আটকদেরকে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুমীত সাহার আদালতে হাজির করা হয়। এসময় আটককৃতরা তাদের অপরাধের কথা স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করলে আদালতের বিচারক শুনানী শেষে যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন নুকুল কে তিন মাস ও তৌহিদুর রহমান লিটনকে ছয় মাসের কারাদন্ড দেয়। এছাড়াও অন্যদের কেউ বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

অন্য দন্ডপ্রাপ্তরা হলো বনবেলঘড়িয়া এলাকার আকবর আলীর ছেলে আরিফ হোসেন (২৭), বাবলুর ছেলে মিঠু (২৮), বিপ্রবেলঘড়িয়া এলাকার, মৃত নাজিমুদ্দিনের দুই ছেলে শাহিন মাহমুদ (২৮), শফিক আহম্মেদ (৩৫), আতোয়ার রহমানের ছেলে রুবেল আহমেদ (২১), আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে সোহানুর রহমান (২৪), দলিলুর রহমানের ছেলে মনিরুল ইসলাম (২৭), মাঝদিঘা গ্রামেরমৃত সুলতান ব্যাপারীর ছেলে শাহাদৎ হোসেন (৩৪), মমিনপুর গ্রামের মৃত মাধুরাম সরদারের দুই ছেলে সুজন সরদার (২৪), সুভাষ সরদার (৪২), বনবেলঘড়িয়া এলাকার শাহাজাহান আলীর ছেলে রাজ্জাক (৩৪), মৃত ইছাহাক আলীর ছেলে আজাদ হোসেন (৩৫), পূর্ব মাধনগর গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে ফারুক হোসেন (২৬), একই উপজেলার বানরভাগ গ্রামের সৈয়দ আলীর ছেলে মোখলেছ (৩৫)। বিচার শেষে রাতেই দন্ডপ্রাপ্তদের নাটোর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রিন্স, ঢাকা