রবীন্দ্রনাথের বিজ্ঞানমনস্কতার পিছনে জগদীশ চন্দ্র বসুর অবদান রয়েছে: নূর

স্টাফ রিপোর্টার: সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু তাঁর বিজ্ঞানকর্ম দিয়ে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথকে প্রভাবিত করেছেন। রবীন্দ্রনাথের বিজ্ঞানমনস্কতার পিছনে জগদীশ চন্দ্র বসুর অবদান রয়েছে। অন্যদিকে, রবীন্দ্রনাথ জগদীশ চন্দ্র বসুকে বিজ্ঞান গবেষণার জন্য আর্থিক সাহায্য প্রদান করেছিলেন। দুই জনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের এটি ছিল অন্যতম দিক।

মন্ত্রী শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওস্থ জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর মিলনায়তনে ‘বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসুর ১২০তম বন্ধুত্ব বার্ষিকী’ উপলক্ষে বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমি এবং জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমির সভাপতি প্রফেসর ড. কাজী আব্দুল ফাত্তাহ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ‘রবীন্দ্রনাথের বিজ্ঞান চেতনা, ধ্যান ও স্রষ্টা বন্দনা’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমির সাবেক সভাপতি প্রফেসর ড. এম শমশের আলী। মূল প্রবন্ধের ওপর আলোচনা করেন বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমির সেক্রেটারি প্রফেসর ড. মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ।

মন্ত্রী বলেন, রবীন্দ্রনাথের কবিতা ও গানের মধ্যে যে বিজ্ঞান চেতনা লুকিয়ে আছে- তা আজকের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন ও এ সংক্রান্ত আলোচনার মাধ্যমে বিশেষভাবে ফুটে ওঠেছে। তিনি বলেন, রবীন্দ্রনাথের মতো যুক্তিবাদী ও বিজ্ঞানমনস্ক মন আমাদের সকলেরই থাকা উচিত। উপস্থিত দর্শকদের বিশেষ করে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের যেমন মানবিক তথা শিল্প-সংস্কৃতির বিষয়সমূহ সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে, একইভাবে মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীদেরও বিজ্ঞান সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা থাকতে হবে। তবেই কেবল আমাদের দেশে আগামী দিনে যোগ্য, দক্ষ, রুচিশীল ও মানবিক গুণাবলীসম্পন্ন মানুষ তৈরি হবে।