শিল্পকলা একাডেমিতে ভাস্কর্য পার্ক নির্মাণ করা হবে: নূর

স্টাফ রিপোর্টার: সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনের সামনের অব্যবহৃত ভূমিতে একটি ভাস্কর্য পার্ক নির্মাণ করা হবে। তবে ভবিষ্যতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সাংস্কৃতিক বলয়ের অংশ হিসেবে বড় পরিসরে একটি ভাস্কর্য পার্ক নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।

মন্ত্রী বুধবার রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির চারুকলা বিভাগের আয়োজনে ‘৪র্থ জাতীয় ভাস্কর্য প্রদর্শনী ২০১৮’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর ২০১৪ সালে দীর্ঘ ৩১ বছর পর ৩য় জাতীয় ভাস্কর্য প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। এবার ৪ বছর পর ৪র্থ জাতীয় ভাস্কর্য প্রদর্শনী আয়োজন করা হলো। আগামীতে ২ বছর পর পর এ প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হবে। মন্ত্রী বলেন, ভাস্কর্য শিল্পের একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। পৃথিবীর যেকোনো উন্নত বিশেষ করে প্রাচীন দেশে অসাধারণ সব ভাস্কর্য দর্শনার্থীদের মুগ্ধ ও বিমোহিত করে। এটি ইতিহাস ও সভ্যতাকে ধারণ করে। তিনি বলেন, অন্য মাধ্যমের শিল্পকর্ম কালের ধারায় বিনষ্ট হয়ে যেতে পারে কিন্তু ভাস্কর্য শিল্প টিকে থাকে শতাব্দীর পর শতাব্দী।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব মোঃ নাসির উদ্দিন আহমেদ এবং বরেণ্য ভাস্কর হামিদুজ্জামান খান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির চারুকলা বিভাগের পরিচালক আশরাফুল আলম পপলু।

উল্লেখ্য এ প্রদর্শনীটি ৯ মে থেকে শুরু হয়ে আগামী ৭ জুন পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১১টা (শুক্রবার বিকাল ৩টা) থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে।