টেকসই উন্নয়নের জন্য শক্তিশালী প্রতিষ্ঠান দরকার

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ একই সঙ্গে নগরায়ন, শিল্পায়ন, তারুণ্যের প্রাধান্য এবং প্রযুক্তির রূপান্তর ঘটছে। এই রূপান্তর সমূহ ঠিকমত পরিচালনার জন্যে অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠানমালার ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ন। ৯ মে পিকেএসএফ এ বাংলাদেশ ইকোনোমিস্ট ফোরাম (বিইএফ) প্রকাশিত একটি বইয়ের মোড়ক উম্মোচন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংক এর সাবেক গভর্ণর ও বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. আতিউর রহমান একথা বলেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে মাননীয় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী জনাব এম এ মান্নান, এম.পি উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ড. কাজী খলিকুজ্জামান, ড. মহিউদ্দীন আলমগির, ড. মুজেরী, ড. সুলতান হাফিজ রহমান ও ড. সাদিক আহমেদ আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। মানবিক দৃষ্টিকোন বজায় রেখে এই প্রতিষ্ঠান গুলোর উন্নয়ন নিশ্চিত করার প্রয়োজন রয়েছে। ভালভাবে প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়ন করা গেলে টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। শহর ও গ্রাম দিন দিন গভীরভাবে সংযুক্ত হচ্ছে এবং একই রূপ ধারণ করছে।

মোবাইল ফোন এই সংযুক্তিকে আরও গতিময় তরে চলেছে। বিশেষ করে মোবাইল আর্থিক সেবা অর্থ লেনদেনে বিপ্লব এনেছে। গরীব মানুষ ছাড়াও খুদে উগ্যোক্তারা এর সুফল পাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার নীতি কৌশল নেবার কারনে এ সম্ভব হয়েছে। তবে এখনও অনেক প্রাতিষ্ঠানিক বাঁধা রয়ে গেছে। এসব মোকাবেলা করেই আমাদের বেশি করে স্বপ্ন দেখতে হবে এবং বেশি বেশি সে স্বপ্নের রূপায়ণ করতে হবে। তবেই আমরা আমাদের আরাধ্য উন্নত বাংলাদেশ তথা সোনার বাংলা অর্জন করতে পারবো।