পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে সন্ত্রাসী নিহত

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সন্ত্রাসী আলতাব হোসেন (৩৮) নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি এ ঘটনায় পুলিশের ৩ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে। সোমবার ভোররাত সোয়া ৩টার দিকে দৌলতপুর-কাতলামারী সড়কের পিপুলবাড়িয়া কালুরমাঠে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনা ঘটে।

দৌলতপুর থানার ওসি শাহ দারা খান জানান, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটানোর উদ্দেশ্যে একদল সন্ত্রাসী পিপুলবাড়িয়া কালুরমাঠে অবস্থানের গোপন সংবাদ পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে শুরু হয় উভয়ের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধ। প্রায় আধা ঘন্টা ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন গুলিবিদ্ধ হলে তাকে উদ্ধার করে দৌলতপুর হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। পুলিশ জানতে পারে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ব্যাক্তি আলতাব হোসেন।

তিনি পুলিশের তালিকাভূক্ত একজন শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে হত্যা ও মোটরসাইকেল ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধের একাধিক মামলা রয়েছে। ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দৌলতপুর থানার এসআই রাজ্জাক ও এএসআই আরিফসহ ৩ জন আহত হলে তাদের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তুল, ১ রাউন্ড গুলি ও ৩টি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত আলতাব হোসেন দৌলতপুরের বোয়ালিয়া ইউনিয়নের বিলবোয়ালিয়া গ্রামের মোশরাফ হোসেনের ছেলে।

প্রিন্স, ঢাকা