অধ্যাপক রেজাউল হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু বিচার দাবি

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক রেজাউল করিম হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়েছে বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।আজ রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় বিভাগের সামনে মকুল মঞ্চে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ থেকে তাঁরা এ দাবি জানান। এসময় সুষ্ঠু বিচার না পেলে আন্দোলনের হুশিয়ারি দিয়েছেন বিভাগের শিক্ষকরা।

আগামী ৮ মে অধ্যাপক রেজাউল করিম হত্যা মামলার রায় ঘোষিত হবে। গত ১১ এপ্রিল রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে বিচারক শিরীন কবিতা আখতার মামলার রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন।

সমাবেশে বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ এফ এম মাসউদ আখতার বলেন, সমাজে এক ধরণের উগ্রপন্থি যুব সমাজ তৈরি হয়েছে। যারা এ ধরণের বর্বর হত্যাকান্ডের মত কাজে জড়িয়ে হয়ে পড়েছে। তবে আমাদের শিক্ষার্থীদের যাতে এসকল কর্মকাণ্ডের থেকে বিরত থাকে তার সকল প্রচেষ্টা আমরা চালাবো। এতে আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবো যাতে সহজেই এটা নির্র্মূল যায়।

বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমরা হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার চাই। তবে সুষ্ঠু বিচার না পেলে আমরা আবার আন্দোলনে যাবো। কিন্তু এ আন্দোলন সরকারের বিরুদ্ধে নয়; ন্যায্য বিচার পাওয়ার জন্য।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ কলা ভবনের সামনে থেকে সকাল ১০টায় এক মৌন মিছিল বের করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুকুল মঞ্চে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এসময় সমাবেশে বিভাগের দুই শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২৩ এপ্রিল সকালে রাজশাহীর শালবাগান এলাকায় নিজের বাড়ি থেকে মাত্র ৫০ গজ দূরে দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করে অধ্যাপক ড. রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে।