ঢাবির সাথে যুক্ত হচ্ছে সত্যজিৎ রায় ইনস্টিটিউট

নিউজ ডেস্ক: যৌথ প্রোডাকশনের লক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সাথে যুক্ত হতে যাচ্ছে কলকাতার সত্যজিৎ রায় ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (এসআরএফটিআই)। এ লক্ষ্যে শিগগিরই একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হবে।

এর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো কোনো বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে এমন একটি উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে এসআরএফটিআই। সমঝোতা স্মারক খসড়াটি এখন ভারতের কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।

এসআরএফটিআই-এর মহাপরিচালক দেবমিত্রা মিত্র জানান, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে এই সম্পর্কিত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হলে এসআরএফটিআই-এ সদ্য চালু হওয়া ইলেকট্রনিক এবং ডিজিটাল মিডিয়া’র ক্ষেত্রে খুবই সহায়ক হবে। সেই সাথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং এসআরএফটিআই-উভয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও ফ্যকাল্টিদের মধ্যে বিনিময় অনুষ্ঠানও হবে। এতে একটি প্রতিষ্ঠানের সদস্যরা অপর প্রতিষ্ঠানে গিয়ে কোনো অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবেন’।

এই সমঝোতা স্মারক হওয়ার ফলে উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সিনেমা ও ডিজিটাল বিষয়বস্তুর ক্ষেত্রে যৌথ প্রোডাকশনের সম্ভাবনা তৈরি হবে বলে মনে করেন দেবমিত্রা মিত্র।

দেশটির কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অনুমোদন পেলেই দেবমিত্রা মিত্র ঢাকায় গিয়ে সমস্ত আনুষ্ঠানিকতা শেষ করবেন বলে জানা গেছে।

দেবমিত্রা জানান, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি সেন্ট্রাল ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথেও শিক্ষার্থী ও ফ্যাকাল্টি বিনিময় অনুষ্ঠান চালু করার ব্যাপারে আলোচনা চলছে। ইতিমধ্যেই আমাদের সাথে ইতালির জেলিগ ফিল্মস স্কুলের শিক্ষার্থী বিনিময় অনুষ্ঠান সম্পর্কিত একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। এর আওতায় প্রতি দুই বছর অন্তর একবার করে আমাদের প্রতিষ্ঠানের পাঁচজন শিক্ষার্থী ও একজন শিক্ষক ইতালি গিয়ে স্নাতকোত্তরের পাঠ নেন এবং যৌথ প্রোডাকশনে অংশগ্রহণ করেন’।

উল্লেখ্য, বিশ্ব বরেণ্য চলচ্চিত্রকার প্রয়াত সত্যজিৎ রায়ের ৯৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গত বুধবার এসআরএফটিআই সমাবর্তন অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের ছয়টি বিভাগের মোট ৪৬ জন শিক্ষার্থীকে ডিপ্লোমা তুলে দেওয়া হয়। এ ব্যাপারে দেবমিত্রা মিত্র জানান, ‘২০১২ সালে ‘ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন প্রোডিউসিং’ বিভাগ চালু হলেও প্রথমবারের মতো এই বিভাগের শিক্ষার্থীদের হাতে ডিপ্লোমা তুলে দেওয়া হল’।