ছাত্রলীগের শীর্ষ পদে মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু

নিউজ ডেস্: আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন ছাত্রলীগের ২৯তম সম্মেলন আগামী ১১ ও ১২ মে অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য বুধবার থেকে মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে আগামী ৪ মে পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করা যাবে। মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ সময় আগামী ৫ মে রাত ৮টা পর্যন্ত। ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে সাম্প্রতিক কিছু ঘটনায় ছাত্রলীগ নিয়ে নতুন করে ভাবছে আওয়ামী লীগ। এই সংগঠনকে নতুন মডেলে নিয়ে আসার নির্দেশনা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। সোমবার গণভবনে দলের নেতাদের সঙ্গে অনির্ধারিত সভায় তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দেন, ছাত্রলীগের সম্মেলনে এবার কোনও ভোটপর্ব থাকছে না। যোগ্যতার ভিত্তিতে পারিবারিক ব্যাকগ্রাউন্ড ও মেধা বিবেচনায় নিয়ে সিলেকশন পদ্ধতিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিতে চায় আওয়ামী লীগ। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেছেন, ‘জীবনবৃত্তান্ত দেখে ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনের ভিত্তিতে নেতা বানানো হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার একদিন আগেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে ঢাবির ছাত্রলীগের সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আগামীতে সিন্ডিকেটের কথায় ছাত্রলীগ চলবে না। ছাত্রলীগ চলবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ও শেখ হাসিনার নির্দেশে।’

দক্ষ, যোগ্য ও মেধাবী নেতৃত্ব আনার লক্ষ্যে ২০০৬ সালে ছাত্রলীগে ভোট প্রক্রিয়া চালু হয়। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা পরামর্শেই এই প্রক্রিয়া শুরু হয়। গত তিনটি সম্মেলনে এভাবেই ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করা হয়। সারাদেশ থেকে আসা কাউন্সিলরা এই ভোটে অংশ নেন। তবে যে লক্ষ্যে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছিল গত তিনটি কমিটি তা পূরণ করতে পারেনি বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা। ফলে ছাত্রলীগের নেতা নির্বাচনে আবার সিলেকশন পদ্ধতির দিকে ফিরে যাওয়া হচ্ছে।