চলনবিল হবে তথ্য প্রযুক্তির মিনি সিঙ্গাপুর: পলক

dav

নাটোর প্রতিনিধি: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, চলনবিলে ইকোনোমিক হাব স্থাপন করে চলনবিলকে তথ্য প্রযুক্তির মিনি সিঙ্গাপুরে রুপান্তরিত করতে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার কাজ করে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়নের লক্ষ্যকে সামনে রেখে সরকার একুশ শতকের উপযোগী দক্ষ মানব সম্পদ গড়ে তুলছে। তারই ধারাবাহিকতায় বিশ্বমানের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তথ্য-প্রযুক্তি খাতে প্রশিক্ষিত জনবল তৈরি করা হচ্ছে।

এ জনবল দ্বারা ২০২১ সালের মধ্যে ৫ বিলিয়ন ডলার অর্জিত হবে। আর এ ক্ষেত্রে চলনবিল অধ্যুষিত সিংড়া উপজেলা হবে তথ্য প্রযুক্তির মিনি সিঙ্গাপুর।

সোমবার দুপুরে নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের সিংড়া উপজেলার শেরকোল এলাকায় সিংড়া টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, সারা দেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক নির্মিত হচ্ছে যেখানে ২০ লাখ তরুণ-তরুনীর কর্মসংস্থান হবে। সিংড়াতে প্রায় ৩০০কোটি টাকা ব্যয়ে হাইটেক পার্ক, ইনকিউবেশন সেন্টার, টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার ও টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ প্রতিষ্ঠিত হবে। এগুলো প্রতিষ্ঠানের কাজ সম্পন্ন হলে চলনবিল ইকোনোমিক হাবে পরিনত হবে। এখানে সিংড়ায় ২০ হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সন্দ্বীপ কুমার সরকারের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, গণপূর্ত বিভাগ নাটোরের নির্বাহী পরিচালক জাইদুল ইসলাম, প্রকল্প পরিচালক সালাউদ্দিন, সিংড়া পৌরসভার মেয়র মোঃ জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এড ওহিদুর রহমান শেখ, স্থানীয় শেরকোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফুল হাবিব রুবেল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ ও উপজেলা এবং পৌরসভার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান-সহকারি শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে প্রায় ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে সিংড়া টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার বাস্তবায়নে কাজ করবে গণপূর্ত অধিদফতর।

প্রিন্স, ঢাকা