উত্তর কোরিয়ার পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা

নিউজ ডেস্ক: উত্তর কোরিয়া তাদের সব ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ স্থগিত ও একটি পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্রের কাজ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে।

সে দেশের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) শনিবার জানিয়েছে, অর্থনৈতিক অগ্রগতি ধরে রাখা এবং কোরীয় উপদ্বীপে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

কিমের বরাত দিয়ে কেসিএনএ জানিয়েছে, ২১ এপ্রিল থেকে উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষা ও আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ বন্ধ রাখবে। কিম বলেছেন, আর কোনো পরীক্ষা চালানোর প্রয়োজন নেই, কেননা পিয়ংইয়ংয়ের পারমাণবিক সক্ষমতা ‘প্রমাণিত’।

উত্তরে কোরিয়া থেকে বিষ্ময়কর এ ঘোষণা এমন সময় দেওয়া হলো যখন দেশটি শিগগিরিই শীর্ষ পর্যায়ে দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ঐতিহাসিক আলোচনার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

বিবিসি জানিয়েছে, সামনের সপ্তাহে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন এবং জুনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিমের শীর্ষ বৈঠকে বসার কথা রয়েছে।

উভয় দেশই দীর্ঘদিন ধরে উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু পরীক্ষা বন্ধ করার জন্য চাপ প্রয়োগ করে আসছিল। সম্প্রতি দেশটি তাতে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে।

এদিকে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ স্থগিত ও পারমাণবিক পরীক্ষা বন্ধে পিয়ংইয়ং যে ঘোষণা দিয়েছে তাতে স্বাগত জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, ‘এটি একটি বিরাট অগ্রগতি। উত্তর কোরিয়া ও বিশ্বের জন্য এটি খুবই ভালো সংবাদ।’

এর আগে গত বৃহস্পতিবারও ট্রাম্প বলেছিলেন, উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক পথ থেকে সরে এলে তাদের জন্য ‘উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ’ অপেক্ষা করছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের দপ্তর থেকে পিয়ংইয়ংয়ের এ পদক্ষেপকে ‘অর্থবহ অগ্রগতি’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।দিয়েছেন। ইনের দপ্তরের এক মুখপাত্র বলেন, এ ঘোষণা দুই দেশের আসন্ন শীর্ষ সম্মেলনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।