সিনহার টাকা স্তানান্তর অভিযোগের অনুসন্ধানে দুদক

নিউজ ডেস্ক: দুই ব্যবসায়ীর ব্যাংক হিসাব থেকে ‘রাষ্ট্রের একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির’ অ্যাকাউন্টে চার কোটি টাকা স্থানান্তরের অভিযোগের অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সূত্র জানিয়েছে, সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা এই গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি। এই অভিযোগে সংশ্নিষ্ট দুই ব্যবসায়ীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আগামী ৬ মে তলব করা হয়েছে।

অভিযোগটি অনুসন্ধান করছেন দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন। রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে দুই ব্যবসায়ীকে ৬ মে সকাল ১০টায় হাজির হতে বলা হয়েছে। সেখানে দুদক পরিচালক তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করবেন।

অনিয়ম, দুর্নীতির অনানুষ্ঠানিক অভিযোগে স্বেচ্ছায় পদত্যাগকারী সাবেক প্রধান বিচারপতি সিনহা বর্তমানে কানাডায় অবস্থান করছেন।

দুদকে পেশ করা অভিযোগে বলা হয়েছে, ব্যবসায়ী নিরঞ্জন চন্দ্র সাহা ও মো. শাহজাহান ভূঁইয়া কাগজপত্র দাখিল করে ফারমার্স ব্যাংকের গুলশান শাখায় দুটি হিসাব খোলেন ২০১৬ সালে। ওই শাখার কর্মকর্তাদের সহায়তায় তারা দুই কোটি করে মোট চার কোটি টাকার ঋণ নিয়েছিলেন।

দুই ব্যবসায়ীর হিসাব থেকে দুই কোটি করে চার কোটি টাকা একই বছরের ১৬ নভেম্বর পে-অর্ডারের মাধ্যমে সাবেক ওই প্রধান বিচারপতির ব্যাংক হিসাবে স্থানান্তর করা হয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, যা মানি লন্ডারিং আইনের পরিপন্থী। এই দুই ব্যবসায়ীর বর্তমান ঠিকানা রাজধানীর উত্তরায়। তাদের গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে।

দুদক ফারমার্স ব্যাংকের পদত্যাগ করা চেয়ারম্যান মহীউদ্দীন খান আলমগীর ও অডিট কমিটির চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক চিশতীর বিরুদ্ধেও ঋণ জালিয়াতি, ঋণের কমিশন নেওয়া, গ্রাহকের হিসাব থেকে নিজের হিসাবে অর্থ স্থানান্তর ও অনিয়ম, দুর্নীতির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের একটি অভিযোগ অনুসন্ধান করছে। এ ছাড়া সাবেক প্রধান বিচারপতির হিসাবে অর্থ স্থানান্তরের অভিযোগও অনুসন্ধান করছে দুদক।