নবজাতক মীম আর নেই

নিউজ ডেস্ক: ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত ঘোষণার পর দাফনের আগে নড়ে ওঠা মীম নামের সেই নবজাতককে আর বাঁচানো গেল না। গতকাল সোমবার রাত দেড়টার দিকে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ঢাকা শিশু হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. আব্দুল অাজিজ জানিয়েছেন।

জানা যায়, মীমকে মৃত ঘোষণা করার পর রাজধানীর আজিমপুর কবরস্থানের গোসল ঘরে গায়ে পানি দেয়ার সময় নড়ে-চড়ে চিৎকার দিয়ে উঠে সে। মৃত মেয়ে নবজাতক জীবিত হয়ে যাওয়ায় স্বজনরা দ্রুত অাজিমপুর শিশু মাতৃসদনে নিয়ে যান। পরে সেখান থেকে ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

শিশু হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. অাব্দুল অাজিজ নবজাতকের চিকিৎসা দেন। তিনি জানান, ওই নবজাতকের ওজন প্রায় এক কেজি। তার হার্ট অত্যন্ত দুর্বল ছিল। তাকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়েছিল।

আজিমপুর কবরস্থানের মোহরার হাফিজুল ইসলাম বলেন, নবজাতকের মামা কনস্টেবল শরীফুল ইসলাম দাফনের জন্য সকালে অাজিমপুর কবরস্থানে অাসেন। কবরস্থানের নিবন্ধন বইয়ে নবজাতকের নাম লেখা হয়েছে মীম। তার মায়ের নাম শারমিন। বাড়ি ঢাকার ধামরাইয়ের শ্রীরামপুর গ্রামে। সকালে নবজাতকের লাশের গোসল করাচ্ছিলেন ইয়াসমিন নামে এক নারী। এসময় নবজাতক চিৎকার করে কান্না করলে, ওই নারী ছুটে এসে তার কাছে খবর দেয়। এরপর নবজাতকের মামা নবজাতকটিকে নিয়ে হাসপাতালে রওয়ানা দেন।