শিবচরে দোকানে আগুন দিয়ে প্রতিবন্ধি এক যুবককে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা

 

মাদারীপুর প্রতিনিধি : মাদারীপুরের শিবচরে প্রতিবন্ধি এক যুবককে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা এবং দোকানে আগুন দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত প্রতিবন্ধিকে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে। কর্তব্যরত ডাক্তার জানান তার হাত, পা ও মুখ মন্ডলসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান আগুনে পুড়ে গেছে ।

শিবচর উপজেলাধীন মাদবর চর খাড়াকান্দি এলাকায় গতকাল শনিবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র জানায়, খাড়কান্দি এলাকার আঃ রশিদ মাদবরের ছেলে শাহীন মাদবর প্রতিবন্ধি হওয়ার কারনে এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিরা মাদবরচর হাটের মধ্যে শাহীনকে একটি দোকান করার জন্য স্থান নির্ধারন করে দেন।

কিন্তু দোকান ঘর নির্মাণ করার সময় থেকেই শাহীন মাদবর ও স্থানীয় দুলাল মুন্সী’র সাথে বিরোধ শুরু হয়। গতকাল শনিবার রাতে শাহীন ওই দোকানে ঘুমিয়ে ছিলেন। ওই সময় দুলাল মুন্সী শাহীনের দোকানে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুন দেখে শাহীন ঘুমের মধ্যে চিৎকার করে দোকান থেকে বের হওয়ার সময় শরীরের বিভিন্ন স্থান আগুনে পুড়ে যায়।

আহত প্রতিবন্ধি শাহীনের মা মঞ্জু বেগম জানান, দুলাল মুন্সীসহ তার সংগে আরো ৪/৫ জন সন্ত্রাসীরা আমার ছেলে শাহীনকে পুড়িয়ে মারার উদ্দেশ্যে দোকানে চারদিকে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। আমার প্রতিবন্ধি ছেলে শাহীন প্রানে মারার চেষ্টার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমক্লেক্সের ডাক্তার মনজুরুল মোর্শেদ জানান, আজ রোববার সকালে মাদবরচর থেকে আগুনে পোড়া রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। আহত শাহীন জন্মগত প্রতিবন্ধি। তার শরীরের প্রায় ৬/৭টি স্থান আগুনে পুড় গেছে। তবে শংকামুক্ত বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক।

শিবচর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাকির হোসেন মোল্লা জানান, দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের জন্য পুলিশ মাঠে কাজ করছে।