ক্রীড়ামন্ত্রীর ওপর হামলাকারীদের চিহ্নিত করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

নিউজ ডেস্ক : ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়ের ওপর হামলা চালিয়েছেন যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতাকর্মীরা। বুধবার স্থানীয় সময় বিকালে যুক্তরাজ্যের লন্ডনে দ্বিতীয় কুইন এলিজাবেথ কনফারেন্স হলের সামনে এই অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে কনফারেন্স হলের বাইরে বিক্ষোভ করছিল যুক্তরাজ্য বিএনপি। তখন উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় জানতে চান, ‘এখানে কী হচ্ছে?’ তখনই বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা তার ওপর হামলা চালান।

হামলার পরই আরিফ খান জয় ক্লারিজে’স হোটেল গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ঘটনার বর্ণনা দেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, হামলাকারী কারা? তাদের চিহ্নিত করতে তিনি বৃটিশ পুলিশ ও বাংলাদেশের আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে নির্দেশ দেন। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার নাজমুল কাওনাইনকে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার নাজমুল কাওনাইন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ নেতা প্রশান্ত ভূষণ বড়ুয়া, শামছুদ্দীন খান, আফসার খান সাদেক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে হামলার ঘটনা স্বীকার করেছেন যুক্তরাজ্য বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কয়সর এম আহমদ। তিনি বলেন, যুক্তরাজ্য বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি চলাকালে সেখানে উপস্থিত হওয়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়ের ওপর বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা হামলা চালান। তবে কিছু নেতাকর্মী তাকে রক্ষা করেছেন। এদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যায়, বার্কলেস ব্যাংকের সামনে উপমন্ত্রীকে ঘিরে রেখে হামলা থেকে রক্ষার চেষ্টা করছেন বিএনপির কিছু নেতাকর্মী। তবে অনেকে কটূক্তিও করছেন। একজন লাঠি দিয়ে আঘাত করার চেষ্টায় ছিলেন। অন্য একজন উপমন্ত্রীর দিকে পানির বোতলও ছুড়ে মেরেছেন। পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় ও হামলাকারী দুজনকে আটক করে।

অপরদিকে উপমন্ত্রী জয়ের ওপর এই হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ। যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক বলেন, ‘একজন ভদ্রলোক ও বাংলাদেশ সরকারের উপমন্ত্রী কনফারেন্স থেকে বেরিয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় এই হামলা প্রমাণ করে বিএনপি খুন, হত্যা ও সন্ত্রাসের রাজনীতিতে বিশ্বাসী। এ ঘটনায় যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আমি নিন্দা জানাই।’