মোদীর বিরুদ্ধে মুখ খুলুন: যশবন্ত সিনহা

নিউজ ডেস্ক: ভারতে মোদী সরকারের কাজকর্ম নিয়ে প্রশ্ন তুলে দলীয় এমপিদের উদ্দেশে খোলা চিঠি লিখলেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা যশবন্ত সিনহা। এমপিদের তিনি বলেছেন, মোদীর বিরুদ্ধে এখনই মুখ খোলার সময়। অন্যথায় ভবিষ্যতে ক্ষতিগ্রস্ত হবে দল।

সাবেক এই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর দাবি, দেশের মানুষ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ওপর থেকে ভরসা হারিয়ে ফেলেছেন। ভরসা হারিয়েছেন তার নীতির ওপর থেকেও।

উন্নাও ও কাঠুয়া ধর্ষণের কথা তুলে যশবন্তের অভিযোগ, দেশের মেয়েরা এখন যেমন অ-সুরক্ষিত তেমনটা আর কখনও ছিলেন না। ধর্ষকদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হলেও এই অপরাধের দৌরাত্ম্য কমাতে পারছে না সরকার।

তিনি বলেন, দলেরই কয়েকজন সদস্যের নাম জড়িয়েছে জঘন্য সব অপরাধে। যে সব প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২০১৪ সালে বিজেপি ক্ষমতায় এসেছিল, সেগুলো তারা পূরণ করতে পারছে না। সরকার বারবার দাবি করে এসেছে, আমরা বিশ্বের সবথেকে দ্রুত বৃদ্ধি পাওয়া অর্থনীতি। কিন্তু বাস্তব পরিস্থিতি বলছে উল্টো কথা।

যশবন্তের আরও অভিযোগ, ব্যাংকে অলস সম্পদের পরিমাণ বাড়ছে, কৃষকরা প্রচণ্ড সমস্যায় রয়েছেন, বেকারত্বের হার বাড়ছে, লোকসানে চলছেন ছোট ব্যবসায়ীরা। অপরাধীরা অনায়াসে চম্পট দিচ্ছেন দেশ ছেড়ে। সরকার শুধু অসহায়ভাবে দেখছে।

যশবন্ত তার বক্তব্যে আরো বলেন, এই সরকারের আমলে সংখ্যালঘুরা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে, সবচেয়ে খারাপ অবস্থা তফসিলি জাতি ও আদিবাসীদের। কেন্দ্রের কোনও সুস্পষ্ট পররাষ্ট্র নীতি নেই, তা শুধু প্রধানমন্ত্রীর ঘন ঘন বিদেশ সফর আর বিদেশি অতিথিদের জড়িয়ে ধরার মধ্যে সীমাবদ্ধ। চীন আমাদের সমস্ত অধিকার খর্ব করতে চাইছে। কিন্তু কিছুই করতে পারছেন না মোদী।

অন্য দুই প্রবীণ নেতা লালকৃষ্ণ আদবাণী ও মুরলীমনোহর জোশীর প্রতি অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেছেন, জাতীয় স্বার্থে মাথা উঁচু করে দাঁড়ান আপনারা। সাধারণ মানুষের প্রতিও গণতন্ত্রের স্বার্থে সাহস সঞ্চয় করে মোদীর শাসনের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া