সাম্প্রদায়িক শক্তির কাছে রাষ্ট্রের হার- সুলতানা কামাল

নিউজ ডেস্ক: বিকাল ৫টার পর উন্মুক্ত স্থানে পহেলা বৈশাখের সব ধরনের অনুষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞার ঘোষণায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মানবাধিকারকর্মী সুলতানা কামাল। তার মতে, এ সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে রক্ষণশীল, সাম্প্রদায়িক, উৎসববিরোধী ও নারী অধিকারবিরোধী শক্তির কাছে নতি স্বীকার করছে রাষ্ট্র। যা খুবই লজ্জার বিষয়।

গতকাল সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে নারী নিরাপত্তা জোটের সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, প্রতি মুহূর্তেই নারীর জন্য বাইরের জায়গা সংকুচিত হয়ে যাচ্ছে। নারী কোথায় যাবেন, কোন পোশাক পরবেন, তা অন্যদের মাধ্যমে নির্ধারিত হচ্ছে। রাষ্ট্রও এ ক্ষেত্রে বিরোধী শক্তির কাছে নতি স্বীকার করছে।

তিনি বলেন, পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান কেউ চাইলে বিকাল পাঁচটার মধ্যে শেষ করতেই পারে। কথা সেটা নয়; কথা হলো ‘রাষ্ট্র কেন তা বলে দেবে?’ এটা তো রাষ্ট্রের দায়িত্ব নয়। রাষ্ট্রের ঘোষণা অনুযায়ী, বিকাল ৫টার পর যে কেউ যে কোনো কিছু ঘটাতে পারে। কোনো নারী তখন রাস্তায় থাকলে বা কোনো বিপদ হলে রাষ্ট্র তখন তাকে নিরাপত্তা দিতে পারবে না; বলবে বিপদের কথা তো আগেই বলে দেওয়া হয়েছে।
এ নিয়ে নারী নিরাপত্তা জোটের এ আহ্বায়ক আরও বলেন, দেশের নাগরিক উৎসবের মধ্যে বা কর্মক্ষেত্রে থাকুক আর যেখানেই থাকুক, রাষ্ট্রের দায়িত্ব তাকে ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তা দেওয়া।