সামষ্টিক অর্থনীতির গতিধারা ঊর্ধ্বমুখি: পরিকল্পনামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, চলতি অর্থবছরের ৯ মাসের হিসাবে জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৬৫ শতাংশ হয়েছে। অর্থবছর শেষে ১২ মাসের হিসাবে চূড়ান্ত প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৬৫ শতাংশ ছাড়িয়ে যাবে। কারণ সামষ্টিক অর্থনীতির গতিধারা ঊর্ধ্বমুখি প্রবণতায় আছে।

প্রবৃদ্ধির হিসাব নিয়ে বিশ্বব্যাংক যে সব প্রশ্ন তুলেছে সেগুলোকে স্বাগত জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী আরো বলেন, তারা আমাদের প্রবৃদ্ধির হিসাব প্রত্যাখ্যান করেনি, কিছু প্রশ্ন তুলেছে। প্রবৃদ্ধির হিসাব ছাড়া বিশ্বব্যাংক তাদের প্রতিবেদনে বাংলাদেশের অর্থনীতির অগ্রগতির ব্যাপক প্রশংসা করেছে। অর্থনীতির উন্নতির জন্য তারা কিছু সুপারিশও করেছে যেগুলোর বেশিরভাগের সঙ্গে বাংলাদেশ একমত।

বুধবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। পরিকল্পনা সচিব মো. জিয়াউল ইসলাম, আইএমইডি সচিব মো. মফিজুল ইসলাম, ভৌত অবকাঠামো বিভাগের সদস্য জুয়েনা আজিজ এবং পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীসহ পরিকল্পনা কমিশনের কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন ।

মন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) কাছে চলতি অর্থবছরের ৯ মাসের হিসাব আছে। আমি বিশ্বব্যাংককে মে মাস পর্যন্ত সময় দিলাম। এর মধ্যে যে সব তথ্য-উপাত্ত নিয়ে তাদের সংশয় সন্দেহ আছে সেগুলো বিবিএসের মাধ্যমে তারা যাচাই করে নিতে পারবেন। আমাদের মধ্যে কোনো লুকোচুরি নেই। বিশ্বব্যাংক বর্তমানে বিবিএসের পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বাস্তবায়নে সহযোগিতা করছে। তাই খুব সহজেই তারা তথ্য যাচাই করতে পারবেন। তথ্য যাচাইয়ের পর প্রবৃদ্ধি বিষয়ে তাদের যে সংশয় তা দূর হবে এবং তারা তাদের প্রতিবেদনেও তা উল্লেখ করবেন। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের প্রতিও একই আহ্বান জানান মন্ত্রী।