দেশ এখন খাদ্যে দেশ স্বয়ং সম্পুর্ণ

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: বাংলাদেশ বিশ্বের সাথে তালমিলে কৃষি খাতেও দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব মন্তব্য করে কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো: আবুল কাশেম বলেছেন, সরকার কৃষিখাতকে অধিকতর গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে। সরকার কৃষকদের ভাগ্য উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছেন। সরেজমিনে উপস্থিত হয়ে কৃষকদের সমস্যার সমাধান করছেন কৃষি কর্মকর্তারা। কৃষক ও কৃষি বিভাগের সম্মিলিত প্রচেষ্ঠায় দেশ এখন খাদ্যে দেশ স্বয়ং সম্পুর্ণ।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা কৃষি অফিসের মাঠ প্রাঙ্গনে ২০১৮-১৯ মৌসুমে প্রনোদনা কর্মসুচীর আওতায় উপশী আউশ ও নেরিকা আউশ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাছে কৃষি উপকরণ ও নগত অর্থসহায়তা বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ সভাপতির বক্তব্যে বলেন, এখন কুষিতে ব্যাপক পরির্বতন হয়েছে আধুনিক যন্রপাতি দিয়ে কৃষিকাজ করা হয়। বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ হওয়াতে বর্তমান সরকার কৃষিখাতে অনেক বরাদ্ধ দিয়েছে। দেশের উৎপাদিত সবজি এখন দেশের বাহিরে রপ্তানি হচ্ছে আমরা তামাক না চাষ করে বেশি করে সবজি, ধান উৎপাদন করবো, তাহলে জমির উর্বরতা কমবেনা। এবছর মাটিরাঙ্গা উপজেলার মোট ২৯০জন কৃষক/কৃষানীর মাঝে নগদ অর্থ সার, বীজ বিতরন করা হয়।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো: শামছুল হক, ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস হাসিনা বেগম, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সুবাস চাকমা ও মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মোনতাকিম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মো: মনছুর আলী, জ্যোতি কিশোর বড়ুয়া উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষন কর্মকর্তা মাটিরাঙ্গা উপজেলা কৃষি মাটিরাঙ্গা প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মো: জসিম উদ্দিন জয়নাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরে আমন্ত্রিতদের নিয়ে প্রনোদনা কর্মসুচীর আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাছে কৃষি উপকরণ ও নগত অর্থসহায়তা বিতরণ করেন পার্বত্য খাগড়াছড়ি জেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো: আবুল কাশেম।

প্রিন্স, ঢাকা