ক্লাস বর্জন করে আন্দোলনের পথে ছাত্ররা

খুলনা প্রতিনিধি: ঢাকা সহ সারাদেশে কোটা সংস্কারের দাবিতে চলমান আন্দোলন। আরো বেশি জোড়ালো হয়েছে।

সোমবার খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা কোটা সংস্কারের দাবিতে খুলনা জিরো পয়েন্টে আন্দোলন করে এবং সেখানে অবস্থান করে। সেখানে তাদের অবস্থান কর্মসূচি পালনের সময় তারা পুলিশের বাধার সম্মখিন হয় এবং আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার জন্য তাদের উপর এক পর্যায়ে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে বলে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়।

এ আন্দোলনে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নর্থ সাউথ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, দারুল এহসান ইউনিভার্সিটি, খুলনা সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও সরকারি বিএল কলেজের ছাত্ররা অংশ গ্রহণ করে।

পুলিশের টিয়ারসেল নিক্ষেপে একাধিক ছাত্র আহত হলে তাদের পোশাক উচু করে অন্যান্যরা আন্দোলন করতে থাকে এবং তাদের পাঁচ দফা দাবি মানা হবে কি না, তা নিয়ে গভীর রাত পর্যন্ত অান্দোলন অব্যাহত রাখে।

গতকালও তারা একইভাবে আন্দোলন করে। আন্দোলন আজ আরও বেশি জোরালো হয়েছে। আজ ভিন্ন ভিন্ন ভাবে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, সরকারি বিএল কলেজ ও খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট)’র ছাত্ররা অবস্থান দর্মঘট ও ক্লাস বর্জন করছে।

আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী এক শিক্ষার্থী সেলিনা রহমান বলেন, আমরা গ্রাজুয়েশন করেও কোন চাকুরি পাচ্ছি না। এর অন্যতম কারণ কোটাধারীরা আমাদের স্থান দখল করে নিচ্ছে। তারা যথেস্ট যোগ্যতা সম্পন্ন না হওয়া সত্তেও চাকুরি পাচ্ছে ফলে শিক্ষিত বেকার বাড়ছে। আমরা দাবি আদায় করে তবে ঘরে ফিরতে চাই।

সকাল থেকেই বিএল কলেজ কোটা সংস্কার আন্দোলনে সমাবেশ মিছিল করেছে। এবং কিছুক্ষণ আগে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিরাট পদযাত্রা জিরো পয়েন্টের উদ্দেশে রওনা হয়েছে। যেখানে স্লোগান দেয়া হচ্ছিল বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের ঠাই নাই, কোটা প্রথার সংস্কার চাই।

প্রিন্স, ঢাকা