মসজিদ ভিত্তিক শিক্ষা কাযক্রম নিয়ে জুমার নামাজে হামলা

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ জালালপুর গ্রামে নূর মসজিদের ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর শিক্ষা ভিত্তিক চালু করার পর থেকে বিরোধীতার ঘটনা ঘটেছে। এই বিরোধের কারণে জুমার নামাজ পড়াতে ইমামকে বাধা দেয় এবং মুসল্লিদের উপর হামলা চালায়।

এতে দৈনিক আমার সংবাদের সাংবাদিকসহ ০৮ জন জখম হয়েছেন। পরে পুলিশ এসে আহতদের উদ্ধার করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ জালালপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। আহতরা হলেন,মালম মিয়া (২৮), মিলন মিয়া (৪৮), তাইজ উদ্দিন (৪৫), হাফিজুর রহমান (৪০), সুমন (২৫), আতিক (২০), সাংবাদিক মফিজ উদ্দিন নয়ন (৪২), ও ইমন (১৪)।

জানা যায়, শুক্রবার জুমার নামাজের পূর্বে মসজিদের ইমাম মাওলানা মো. তাজুল ইসলাম নামাজ পড়াতে এলে বর্তমান ইউপি সদস্য মো. গোলাপ মিয়ার সমর্থকরা বাধা দেয়। অপরদিকে মো. শরীফ উদ্দিনের সমর্থকরা ইমাম সাহেবকে নামাজ পড়াতে বলেন, একপর্যার্য়ে মুসল্লিদের উপর হামলা চালায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
এ বিষয়ে কটিয়াদী মডেল থানার ওসি মো.জাকির রব্বানী বলেন, সংঘর্ষের সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ব্যাপারে কটিয়াদী মডেল থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করা হয় ।

প্রিন্স, ঢাকা