নিরাপত্তা পরিষদে বৈঠক আহ্বান রাশিয়ার

নিউজ ডেস্ক: পক্ষত্যাগী প্রাক্তন রুশ গুপ্তচরের ওপর রাসায়নিক হামলার অভিযোগে যুক্তরাজ্য ও এর মিত্রদের সঙ্গে রাশিয়ার কূটনৈতিক সম্পর্কে যে টানপোড়েন দেখা দিয়েছে তা নিরসনে বৃহস্পতিবার নিরাপত্তা পরিষদের বিশেষ বৈঠক ডেকেছে মস্কো।

গত ৪ মার্চ যুক্তরাজ্যের সলসবেরি শহরে একটি রেস্তোরাঁর বাইরে অচেতন অবস্থায় পক্ষত্যাগী প্রাক্তন রুশ গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়া স্ক্রিপালকে। পরে জানা যায়, তাদের ওপর বিষাক্ত রাসায়নিক হামলা চালানো হয়েছে।

গত মাসে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বলেছিলেন, যুক্তরাজ্যের গবেষকেরা নিশ্চিত হয়েছেন, যে রাসায়নিক প্রয়োগ করা হয়েছে, সেটির নাম ‘নোভিচক’। এটা সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের (বর্তমান রাশিয়া) গবেষণাগারে তৈরি। তিনি রাশিয়াকে স্ক্রিপালকে হত্যাচেষ্টার জন্য দায়ী করেন। যুক্তরাজ্যের নিরাপত্তা ওপর হামলা দাবি করে এই ইস্যুতে রাশিয়ার ২৩ কূটনীতিককে বহিষ্কারের নির্দেশ দেন তিনি। এরপর যুক্তরাজ্যের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে ২০টিরও বেশি মিত্র দেশ ৬০ জন রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করে।

বুধবার জাতিসংঘে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে বলেছেন, ‘আমাদের গৃহীত নীতি অনুযায়ী, যে কোনো স্থানে যে কারো রাসায়নিক অস্ত্রের ব্যবহার অগ্রহণযোগ্য এবং অবশ্য তদন্ত ও শাস্তিযোগ্য। আমরা জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে একটি উন্মুক্ত আলোচনা বৈঠকের জন্য আপনাদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।’