পহেলা বৈশাখে মুখোশ-ভুভুজেলা নিষেধ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন, সারাদেশে উন্মুক্ত স্থানে নববর্ষের অনুষ্ঠান চলবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। তবে রাজধানীর রবীন্দ্র সরোবরে অনুষ্ঠান চলবে সকাল ৭টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত। তবে নিরাপত্তা পরিস্থিতি বিঘ্ন ঘটানোর কোনও ধরনের আশঙ্কা নেই। পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে কোনো মুখোশ ও ভুভুজেলা ব্যবহার করা যাবে না। সার্বিক নিরাপত্তার স্বার্থেই সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মঙ্গলবার বিকালে সচিবালয়ে পহেলা বৈশাখের আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত এক সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।

তিনি বলেন, পহেলা বৈশাখের র‌্যালিতে বা অন্য স্থানে ইভটিজিং রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকবে। এছাড়া উন্মুক্ত স্থানে অনুষ্ঠান চলাকালে ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরি দল কাজ করবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রায় মুখে মুখোশ পড়া যাবে না। তবে তা হাতে নিয়ে প্ল্যাকার্ড হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। ইভটিজিং প্রতিরোধে সাদা পোশাকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা টহল দেবেন। মোবাইল কোর্টও (ভ্রাম্যমান আদালত) পরিচালনা করা হবে।
পহেলা বৈশাখের মূল অনুষ্ঠান রমনার বটমূলে হবে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ওইদিন গোটা ঢাকা শহর ও বৈশাখ উপলক্ষে আয়োজিত সব অনুষ্ঠানস্থল সিসিটিভি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত থাকবে।

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ডাক্তারদের দেওয়া প্রতিবেদন অনুযায়ী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় সরকার ব্যবস্থা নেবে।
অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রংপুরের বিশেষ জজ আদালতের পিপি রথিশ চন্দ্র ভৌমিক ওরফে বাবু সোনার সন্ধানে সরকার তৎপর আছে।

বর্ষবরণের প্রস্তুতি হিসেবে সচিবালয়ের এ সভায় উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি, সিটি করপোরেশনের প্রতিনিধিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।