র‌্যাব পরিচয়ে খাবার হোটেল ভাংচুর

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ভাটই বাজারে র‌্যাব পরিচয় দিয়ে একটি খাবার হোটেল ভাংচুর ও টাকা ছিনাতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে ভাটই বাজারের রিয়াদ হোটেল এন্ড ফাস্টফুড’এ ঘটনা ঘটে। দোকানের মালিক রফিকুল ইসলামের ভাই তৌফিকুর রহমান অভিযোগ করেন, শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে র‌্যাব পরিচয় দিয়ে ১০/১২ ব্যক্তি হোটেলে প্রবেশ করে।

এসময় তারা মালিক রফিকুল ইসলামের খোঁজ করেন। রফিকুল ইসলামকে না পেয়ে তারা হোটেলের চেয়ার, টেবিল ভাংচুর করে। তারা যাওয়ার সময় ক্যাশ বাক্সে থাকা টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগ করেন তৌফিকুর রহমান। দোকান মালিক রফিকুল ইসলাম বলেন, ভাটই এলাকার মৃত উজির আলীর ছেলে তোজাম নিজেকে র‌্যাবের সোর্স দিয়ে ওই এলাকার নানা অপকর্ম করে আসছিল। গত কয়েকদিন আগে তোজামের সাথে তার বাক-বিতন্ডা হয়।

এরই জের ধরে তুজাম এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। অভিযুক্ত তোজামের সাথে মোবাইলে কথা হলে তিনি বলেন, কয়েকদিন আগে রফিকুল ইসলাম আমাকে মারধর করে। এ মামলায় শুক্রবার রাতে র‌্যাব তাকে ধরতে যায়। তাকে না পেয়ে র‌্যাব চলে আসে। কিন্তু রফিকুল ইসলাম আমাকে ফাঁসাতে নিজেরা হোটেল ভাংচুর করে র‌্যাবের উপর দোষ চাপাচ্ছে। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ র‌্যাব ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার সিনিয়র এএসপি খোদাদাদ হোসেন বলেন, আমরা ওখানে আসামী ধরতে গিয়েছিলাম। তবে ভাংচুরের কোন ঘটনা ঘটেনি। কোন পক্ষ সুবিধা নেওয়ার জন্য এ কথা বলছেন।

প্রিন্স, ঢাকা