নির্মাণশ্রমিকদের একটি কাঠামোর মধ্যে নিয়ে আসতে হবে: পরিবেশ ও বন মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: নির্মাণশ্রমিক সংগঠনকে একটি কাঠামোতে নিয়ে এসে তাদের নিরাপত্তা, ক্ষতিপূরণ এবং ইন্স্যুরেন্সের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। এজন্য শ্রমিক সংগঠনটিকে একটি কাঠামোর মধ্যে নিয়ে আসার জন্য তিনি শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে অনুরোধ করেন। আজ রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বাংলাদেশ নির্মাণশ্রমিক ইউনিয়ন আয়োজিত ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকদের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, নির্মাণশ্রমিকরা সুন্দর শহর ও দেশ গড়ার কারিগর। তাদের জীবনযাপন খুব সাধারণ মানের। অথচ তারা যাদের জন্য কাজ করে তারা হচ্ছেন অর্থশালী ও বিত্তশালী। নির্মাণ শ্রমিকদের কোনো নিয়োগপত্র নেই। তারা কাজ করলে টাকা পায়, না করলে তাদের প্রতিদিনের অন্ন সংস্থানের কোনো নিশ্চয়তা নেই।

তাই তাদেরকে সংগঠনের মাধ্যমে একটি কাঠামোতে নিয়ে আসা দরকার। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখার পিছনে নির্মাণশ্রমিকদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যেকোনো উন্নয়ন কর্মকান্ডই শ্রমিকের প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। কাজেই নির্মাণশ্রমিকরা যাতে কোনো অবস্থাতেই অবহেলার শিকার না হয় সেদিকে অবশ্যই আমাদের নজর দিতে হবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশে একসময় এত নির্মাণ কাজ হতো না। এখন সব ক্ষেত্রে উন্নয়ন হচ্ছে। এ উন্নয়নকে অব্যাহত রাখার জন্য নির্মাণশ্রমিকদের মজুরি বাড়ানো দরকার। তাদের কাজটিও বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। যেকোনো শ্রমিক ক্ষতিগ্রস্ত হলে পঙ্গুত্ব বা মৃত্যুবরণ করলে তার জন্য বিশেষ ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা থাকা উচিত। না হয় একসময় নির্মাণশ্রমিক হিসেবে কাজ করার উৎসাহ তারা হারিয়ে ফেলবে। কাজেই আমাদের সকলের উচিত এ বিষয়টি মাথায় রেখে নির্মাণশ্রমিকদের জীবনমানের উন্নয়নে কাজ করা।

নির্মাণশ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি রবিউল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য নাজমুল হক প্রধান বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।