শক্তিশালী ইরানকে ৮ গোল দিল বাংলার কিশোরীরা

নিউজ ডেস্ক : মালয়েশিয়াকে ১০-১ গোলে হারিয়ে চার জাতি জকি ক্লাব নারী ফুটবলে উড়ন্ত সূচনা করেছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল দল। এবার শক্তিশালী ইরানের জালে ৮ গোল দিল কিশোরীরা। দোর্দণ্ড প্রতাপেই নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচটি ৮-১ গোলে জিতেছে তারা। দলের হয়ে হ্যাটট্রিক করেছে তহুরা খাতুন।

ফিফা র‌্যাংকিংয়ে ইরানিদের অবস্থান ৫৮, অন্যদিকে বাংলাদেশের অবস্থান ১০২। তবে তহুরা-শামসুন্নাহারদের কাছে পাত্তাই পেল না ৪৪ ধাপ এগিয়ে থাকা দলটি। র‌্যাংকিংকে স্রেফ গাণিতিক সংখ্যা বানিয়ে ফেলেছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

গেল ম্যাচের জয়ের আত্মবিশ্বাস কাজে লাগিয়ে শুরুর বাঁশির পর পরই গোলোৎসবে মাতে বাংলাদেশ। প্রথম মিনিটেই প্রতিপক্ষের জালে বল জড়িয়ে দলকে লিড এনে দেয় তহুরা। এতেই ক্ষ্যান্ত হয়নি সে। ২৯ মিনিটের মধ্যে আরও দুবার লক্ষ্যভেদ করে হ্যাটট্রিক পূরণ করে এ ফরোয়ার্ড। ১৩ মিনিটে দ্বিতীয় গোলের পর ২৯ মিনিটে হ্যাটট্রিক পূরণ করে কলসিন্দুরের এ কিশোরী।

তহুরা থামলেও গোলোৎসব থামেনি বাংলাদেশের। ৩২ মিনিটে ব্যবধান ৪-০ করে অনাই মগিনি। প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে নিশানাভেদ করে ব্যবধান ৫-০ করেন শামসুন্নাহার।

দ্বিতীয়ার্ধেও চলে গোল উদযাপন। ৬৩ ও ৬৯ মিনিটের ষষ্ঠ ও সপ্তম গোল পায় বাংলাদেশ। ৭৭ মিনিটে ইরানের কফিনে অষ্টম পেরেকটি মারেন সোনার বাংলার কিশোরীরা।

তবে এ অর্ধে একটি গোলও হজম করতে হয় বাংলাদেশকে। যোগ করা সময়ে দ্বিতীয় মিনিটে বাংলাদেশের জালে বল জড়ায় ইরান। এতে এশিয়ার ফুটবল পরাশক্তির আক্ষেপ বেড়েছে, বৈ কমেনি।

আগামীকাল শেষ ম্যাচে স্বাগতিক হংকংয়ের বিপক্ষে মাঠে নামবে তহুরারা। গত ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ ফুটবলে ভারতকে হারিয়ে এ কিশোরীরাই হয়েছিল অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন।