সাংবাদিককে হুমকির দায় থানায় জিডি

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ সংবাদ সংগ্রহ ও প্রকাশের জের ধরে মান্দা উপজেলা প্রেস ক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও সাংবাদিক মাহবুবুজ্জামান সেতুকে হুমকি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত কয়েকদিন যাবৎ তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দেয়া হচ্ছে। ওই ঘটনায় ২৭ মার্চ ২০১৮ মঙ্গলবার নওগাঁর মান্দা থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেছেন, যার নাং- ৮০৬। বর্তমানে তিনি বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টাল এবং স্থানীয়, আঞ্চলিক ও জাতীয় একাধিক দৈনিকে সুনামের সাথে প্রতিনিধিত্ব করে আসছেন।

মাহবুবুজ্জামান সেতু জানান, পেশায় আমি একজন সংবাদ কর্মী হিসেবে পেশাগত দ্বায়িত্ব পালন করার জন্য আমার সহকর্মী মান্দা উপজেলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক হাবিবুর রহমান এবং সহ-সভাপতি বুলবুল আহমেদ এর সাথে মান্দা উপজেলার গণেশপুর ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের পাগলা পাড়ার আব্দুল হামিদের স্কুল পড়–য়া মেয়ে মোছাঃ তহমিনা (১৩) এর সাথে ভেবড়া গ্রামের ইরাক প্রবাসী মোঃ বেলাল হোসেনের পুত্র আব্দুর রহমান (২০) এর প্রেম ঘটিত বিষয়ের উপর সংবাদ সংগ্রহ করতে যাই।

জানাগেছে প্রেমিকা তহমিনা (১৩) সতিহাট জি এস বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী এবং প্রেমিক আব্দুর রহমান (২০) মান্দা আদর্শ কৃষি ও কারিগরি কলেজের এইচ এস সি পরীক্ষার্থী।

ওই ঘটনায় পরবর্তীতে একাধিক পত্রিকায় “মান্দায় স্কুল ছাত্রীর ইজ্জতের মূল্য ৫০ হাজার টাকা মাতবরদের পকেটে এবং মান্দায় প্রেমিকার সাথে দেখা করার অপরাধে প্রেমিকের জরিমানার ৫০ হাজার টাকা প্রভাবশালীদের পকেটে” এই শিরোনামে সংবাদটি প্রকাশ হওয়ার পূর্বে ও পরে গণেশপুর ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের আলহাজ্ব আবুল কাসেম মোল্যার পুত্র ফারুক হোসেন মোল্যা এবং সৈয়দপুর গ্রামের মৃত খয়ের আলী পুত্র হানিফ উদ্দিন মন্ডল বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে আমাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ, মারপিট ও খুন জখম সহ মিথ্যা মামলায় ফাসানোর হুমকি প্রদান অব্যাহত রেখেছে।

তিনি বলেন, এক পর্যায়ে তারা আমার এবং আমার পরিবারের ঠিকানা জানতে চেয়ে বলেন, ও কিসের সাংবাদিক? কোন পত্রিকার সাংবাদিক? তারা বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে তাদের সাথে দেখা করতে বলেন।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিছুর রহমান জানান, সাংবাদিক মাহবুবুজ্জামান সেতু থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রিন্স, ঢাকা