সবুজ পরিবেশের সাথে মনের সবুজায়নটাও এখন জরুরি – সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান

নিউজ ডেস্ক : ‘মুক্তিযুদ্ধ আমাদের অহংকার। আমাদের মুক্তিযুদ্ধে যে ত্রিশ লক্ষ বাঙালি শহীদ হয়েছে তাদের স্মরণে একটি করে গাছ লাগাতে পারে। প্রতিটি গাছই হবে আমাদের স্মৃতির মিনার। এতে করে মানুষ প্রকৃতি ও পরিবেশ আরও টেকসই হবে।’ আজ ২০ মার্চ জাতীয় গ্রন্থগারের শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে পরিবেশ রক্ষায় নতুন সংগঠন ‘সবুজ পরিবেশ আন্দোলন’-এর আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ, সবুজ অর্থায়নের মূল চিন্তক, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্ণর ড. আতিউর রহমান এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ-এর পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে দুপুরে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপচার্য় ড. নাসরিন আহমাদ। আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য়, ইউজিসির সাবেক চেয়ারম্যান অ্যামেরিটাস প্রফেসর ড. এ কে আজাদ চৌধুরী, ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মতুর্জা, পরিবেশ সাংবাদিক কামরুল ইসলাম চৌধুরী এবং ডিআরইউ-এর সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শুকুর আলী শুভ। অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন জেলার কয়েক হাজার শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

ড. আতিউর রহমান আরো বলেন, সবুজ পরিবেশের সাথে সাথে মনের সবুজায়নটাও এখন জরুরি।সেটা না হলে পরিবেশকে আমরা রক্ষা করতে পারব না। একই সাথে পরিবেশ ঠিক রাখতে হলে সরকারি অর্থ ও সহযোগিতা কোথায় কীভাবে যাচ্ছে এবং খরচ হচ্ছে সেটারও সঠিক অবলোকন করতে হবে। ড. আতিউর রহমান বলেন, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পরিবেশ রক্ষায় আগেই নির্দেশনা দিয়ে গেছেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাও পরিবেশ রক্ষায় অসাধারণ ভূমিকা রেখে ‘চ্যাম্পিয়ন অব দ্যা আর্থ’ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। আমরা শুধু বাংলাদেশ নয়, এই পৃথিবীকেও ভালবাসি। রাজনীতি সচেতন তরুণরা পরিবেশ আন্দোলনে যুক্ত হচ্ছে এটি খুবই খুশির সংবাদ বলে তিনি উল্লেখ করেন।