লেনিনের মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে মমতা

নিউজ ডেস্ক:  ভারতের ত্রিপুরার বিলোনিয়ায় থাকা লেলিনের মূর্তি ভেঙে ফেলার প্রতিবাদে মুখ খুলেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। খবর আনন্দবাজারের।

তিনি বলেন, মূর্তিভাঙা গণতন্ত্রে নির্বাচিত দলের কাজ নয়। আর একই কারণে কলকাতার রাজপথে মিছিল করলেন সীতারাম ইয়েচুরি, প্রকাশ কারাট, বৃন্দা কারাট, বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্রেরা। ধর্মতলার লেনিনের কাছে এসেই তাদের দাবি, ফ্যাসিস্ট শক্তি দাঁত-নখ বার করেছে। সঙ্ঘবদ্ধ ভাবে এই তাণ্ডব রুখতে হবে।

ত্রিপুরায় ২৫ বছর পর ক্ষমতার পরিবর্তন হয়েছে। বামদের সরিয়ে সেখানে ক্ষমতায় বসেছে বিজেপি।এরপরই বুলডোজার দিয়ে বিলোনিয়ায় থাকা লেনিনের মূর্তি ভেঙে ফেলা হয়। পরে মূর্তি ভাঙার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশজুড়়ে সমালোচনার ঝড় উঠে।

সেটির সূত্র ধরেই মঙ্গলবার বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে প্রশাসনিক জনসভায় মমতা বলেন, কোনও মনীষীর মূর্তি ভেঙে দেওয়া সরকারের কাজ নয়। যদি মনে করেন, ক্ষমতায় এসেছেন বলে মার্ক্স, লেনিন বা গান্ধীজী, নেতাজির মূর্তি ভাঙবেন, এটা আমরা মেনে নেব না।

তিনি আরও বলেন, আমি সিপিএমের পক্ষে নই, বিরুদ্ধে। মার্ক্স বা লেনিন আমার নেতা নন। কিন্তু রাশিয়ায় লেনিন, মার্ক্স একটা ব্যক্তিত্ব। গণতন্ত্র মানে জবরদখল নয়।