২৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচন বাতিল এবং পুনরায় নির্বাচন অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত

নিউজ ডেস্ক: ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি জনাব আতিকুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে শনিবার সকালে সংগঠনের কার্যালয়ে এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহানা শিউলী, কোষাধ্যক্ষ সেবীকা রানী, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহজাহান মিঞা, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মফিজুর রহমান খান বাবু, সদস্য কুদ্দুস আফ্রাদ, শামীমা দোলা, সলিমউল্ল্রাহ সেলিম, মঞ্জুশ্রী বিশ্বাস, দেবাশীষ রায়, দুলাল খান, সোহেলী চৌধুরী প্রমুখ।

সভায় গৃহীত প্রস্তাবে বলা হয়, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি ডিইউজের দ্বিবার্ষিক (২০১৮-২০১৯) নির্বাচন পরিচালনায় সংশ্লিষ্ট কমিটির ন্যাক্কারজনক পক্ষপাতিত্ব এবং ভোট গ্রহণের নামে যে জাল-জালিয়াতির মহড়া দেওয়া হয়েছে, তাতে এ সংগঠনের মান-মর্যাদা ভুলণ্ঠিত হয়েছে। একই সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের তরফে বিভিন্ন আপত্তি পেশ করার পর, নির্বাচন পরিচালনায় সংশ্লিষ্ট কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয় ভোটের ফলাফল প্রকাশের আগে প্রার্থীদের পক্ষ থেকে সংখ্যাগরিষ্ঠ এজেন্টদের লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তি সাপেক্ষে নির্বাচনের ফলাফল স্থগিত রাখা হবে। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে অভিযোগ দাখিল করা হলে অজ্ঞাত ফোনপ্রাপ্তির পর প্রতিশ্রুতি পালন না করায় পুরো নির্বাচনী প্রক্রিয়া প্রশ্নবিদ্ধ হয়। এমনকি, নির্বাচন পরিচালনায় সংশ্লিষ্ট কমিটির বেশিরভাগ সদস্য ও প্রার্থীর এজেন্টের স্বাক্ষর ছাড়া একতরফাভাবে ফলাফল প্রচারের চেষ্টা করলে উপস্থিত ডিইউজে সদস্যদের প্রতিবাদের মুখে ভ-ুল হয়ে যায়।
তাই, এ সভায় ২৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচন বাতিল এবং ভোটার তালিকা হালনাগাদ করে পুনরায় নির্বাচন অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভায় গৃহীত অপর এক প্রস্তাবে বলা হয়, ডিইউজের অতীত ঐতিহ্য-প্রথা উপেক্ষা করে সংগঠনের প্রাক্তন নেতৃবৃন্দ এবং বর্তমান কমিটির সদস্যদের এড়িয়ে ভোট অনুষ্ঠানের মাত্র দু’দিনের মাথায় অত্যন্ত গোপণে ৫/৬ জনের উপস্থিতিতে কথিত দায়িত্ব হস্তান্তরের যে রূপকথা প্রচার করা হচ্ছে, তাতে এ সংগঠনের ভাবমুর্তি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কেননা, অসত্যের উপর দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের মত মহৎ পেশার সংগঠন চলতে পারে না। তাই এ সভা থেকে এ ধরনের মিথ্যা বেসাতির সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের নিন্দা জানানো হয়।

বর্তমান উদ্ভুত পরিস্থিতিতে এ সভা মনে করে সংগঠনের এ বিপর্যয় মোকাবেলা করতে গ্রহণযোগ্য পুন:নির্বাচনের কোনও বিকল্প নেই। তাই দ্রুত নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নিতে এ সভা সংগঠনের সাধারণ সদস্যদের চাহিদা অনুযায়ী পরবর্তি পদক্ষেপ নিতে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সভায় ডিইউজের নির্বাচনকেন্দ্রিক অভিযোগ দ্রুত নিষ্পত্তি করে সংগঠনের স্বাভাবিক কার্যক্রম অব্যাহত রাখা এবং সদস্যদের পারস্পরিক সংহতি ও ঐক্য আরও গতিশীল করতে বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।