পুলিশ কনস্টেবল পরিক্ষায় আটক ৭জন

নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীতে পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় অন্যের হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের চার ছাত্রসহ ৭ যুবক আটক হয়েছে।

শনিবার(২৪শে ফেব্রুয়ারি) বিকালে নীলফামারী পুলিশ লাইন্স পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে তাদেরকে আটক করে সন্ধ্যার দিকে থানায় নিয়ে আসা হয়।

আটককৃতরা হলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের চার ছাত্র নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার সুরিগাতি গ্রামের শেখ অলিয়ার রহমানের ছেলে শেখ ফজলুল হক রোমান (২২), একই জেলার লোগড়া উপজেলার ইতনা গ্রামের সিকদার আবুল কালাম আজাদের ছেলে এসএম শামীম রেজা (২৩), সাতক্ষিরা জেলা সদরের ভবানীপুর গ্রামের জিয়াদ আলী সর্দারের ছেলে ইউনূছ আলী (২০), রাজবাড়ি জেলা সদরের বামনিপুর গ্রামের ইসমাঈল হোসেনের ছেলে ইয়াছিন মোল্লা (২০)।

নীলফামারী সরকারী কলেজের শিক্ষার্থী জেলার জলঢাকা উপজেলার পশ্চিম খুটামারা গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে একরামুল হক (২৩), একই উপজেলার দক্ষিণ দেশীবাই গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে একই কলেজের অনার্স শিক্ষার্থী রিপন হোসেন (২২) এবং রংপুর সরকারী কলেজের শিক্ষার্থী রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার একবারপুর গ্রামের জলিল মিয়ার ছেলে জোবায়ের রহমান (২৩।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নীলফামারী সদর থানার ওসি বাবুল আকতার জানান, শনিবার বিকালে নীলফামারী পুলিশ লাইন্সে পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা ছিল। ওই পরীক্ষায় ৮৮৯ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করে। এসময় অন্যের হয়ে পরীক্ষায় অংশ নেওয়ায় ওই সাতজনকে আটক করা হয়। তাদের মধ্যে চারজন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে, দুইজন নীলফামারী সরকারি কলেজের এবং একজন রংপুর সরকারি কলেজের অনার্সের শিক্ষার্থী।

প্রিন্স, ঢাকা