ভারতীয় প্রাথমিক স্কুল শিক্ষকদের স্মার্টফোন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা

People show their smartphones on December 25, 2013 in Dinan, northwestern France. AFP PHOTO / PHILIPPE HUGUEN (Photo credit should read PHILIPPE HUGUEN/AFP/Getty Images)

নিউজ ডেস্ক : প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের স্মার্টফোন ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় দপ্তর। এমনকী বিদ্যালয়ের মধ্যে ধূমপানও কঠোরভাবে নিষিদ্ধ করা হল।

২১ ফেব্রুয়ারি এই মর্মে মুর্শিদাবাদ জেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় দপ্তর থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। জেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শক ইতিমধ্যেই এই বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে দিয়েছেন প্রতিটি বিদ্যালয়ে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, প্রাথমিক স্কুলগুলিতে ক্লাসের মধ্যেই শিক্ষক-শিক্ষিকারা হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক ব্যবহার করেন বলে অভিযোগ। যে কারণে পড়াশোনা লাটে উঠেছে। তাই এবার জেলায় শিক্ষার হাল ফেরাতে বিদ্যালয়ের মধ্যে স্মার্টফোন কঠোরভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল। 

মুর্শিদাবাদ জেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শক নীহারকান্তি ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, ভাষা দিবসের দিন থেকে জেলার সমস্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্মার্টফোন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিদ্যালয় চলাকালীন কোনও শিক্ষক-শিক্ষিকা স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। শুধুমাত্র প্রধান শিক্ষক ব্যবহার করবেন বিদ্যালয়ের কাজে।

যদি কোনও শিক্ষক-শিক্ষিকা বিদ্যালয়ের মধ্যে স্মার্টফোন ব্যবহার করার সময় ধরা পড়েন তাহলে তাঁকে অন্যত্র বদলি করার সুপারিশ করা হবে রাজ্য শিক্ষা দপ্তরে। তাছাড়া তাঁর স্মার্টফোনটিও বাজেয়াপ্ত করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। তবে সাধারণ ফোন তাঁরা স্কুলে নিয়ে যেতে পারবেন, সেক্ষেত্রে ক্লাসে ঢোকার আগে প্রধান শিক্ষকের হাতে ফোন জমা দিয়ে যেতে হবে। এর জন্য কড়া নজরদারি চালানো হবে। সর্বশিক্ষা মিশনের সাহায্যে বিদ্যালয়গুলিতে মাঝেমাঝেই পরিদর্শন করা হবে। তাছাড়া বিদ্যালয়ের মধ্যে ধূমপান করা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। দু’টি বিষয়েই ইতিমধ্যে বিদ্যালয়গুলিকে চিঠি দিয়ে সতর্ক করা হয়েছে।