নারীদের অপমান করায় ১০ মাস ১০ দিনের জেল

আজ শনিবার সকালে দুর্গাপুরের সহকারী কমিশনার-ভূমি (এসিল্যান্ড) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সমর পাল এ দণ্ডাদেশ দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত তরুণের নাম আফজাল শরীফ (১৮)। তাঁর বাবার নাম সাইদুর রহমান। বাড়ি দুর্গাপুর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে। তিনি উপজেলার বখতিয়ারপুর ডিগ্রি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের ছাত্র।

আদালত–সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, আজ সকালে এএসসি পরীক্ষার শেষ দিনে ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিষয়ের পরীক্ষা ছিল। আফজাল পরীক্ষার কেন্দ্রে ঢুকে দোতলার সিঁড়ি দিয়ে ওপরে ওঠার সময় ছাত্রীদের সঙ্গে অশালীন আচরণ ও শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন। বিষয়টি ছাত্রীদের সহপাঠীরা দেখে ফেলে। তারা এ ঘটনার প্রতিবাদ করে। এ সময় আফজাল চড়াও হয়ে তাদের সঙ্গে হাতাহাতি করেন।

ওই কেন্দ্রে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) পক্ষে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন সহকারী পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা মাহাবুব হোসেন। তিনি আফজালকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত হাজির করেন।

এসিল্যান্ড সমর পাল বলেন, ‘ওই তরুণকে জিজ্ঞেস করা হয় মায়ের পেটে কত দিন ছিলে? সে জবাব দেয়, “১০ মাস, ১০ দিন”। নারী জাতিকে অপমান করার জন্য তাকে ১০ মাস ১০ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে, যাতে তার অনুশোচনা হয়।’

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুহুল আলম বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা দেওয়ার পর আফজাল শরীফকে থানা–পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। দুপুরেই পুলিশ তাঁকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়েছে।