বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস বুধবার

নিউজ ডেস্ক:  দ্বিতীয়বারের মতো ‘বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস’ পালিত হচ্ছে আজ বুধবার। যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালন করতে দিনব্যাপী শুভেচ্ছা বিনিময়সহ নানান কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। সকাল ১০টায় রাজধানীর তোপখানা রোডে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল মিলনায়তনে কেক কাটার মধ্যে দিয়ে দিবসের কার্যক্রম শুরু হবে।

দিবসটি উপলক্ষে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল পদক প্রবর্তন করা হয়েছে। আনুষ্ঠানিকভাবে পদকপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করা হবে। আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রপতি রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে পদকপ্রাপ্তদের আনুষ্ঠানিকভাবে পদক প্রদান করবেন।

দিবসটি উপলক্ষে পৃথক বাণীতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রেস কাউন্সিলসহ গণমাধ্যমের সঙ্গে সংশ্নিষ্ট সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

রাষ্ট্রপতি এক বাণীতে বলেছেন, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল নীতি প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন, প্রশিক্ষণ ও মতবিনিময়ের মাধ্যমে গণমাধ্যম কর্মীদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে ইতিবাচক অবদান রাখছে। গণতন্ত্রকে সমুন্নত রাখতে এবং প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে স্বাধীন ও নিরপেক্ষ সংবাদপত্রের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সংবাদপত্রের স্বাধীনতা, তথ্যে প্রবেশাধিকার এবং জনগণের ক্ষমতায়ন পারস্পরিক সম্পর্কযুক্ত। এ দেশের প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সাংবাদিকদের ভূমিকা ছিল অত্যন্ত দায়িত্বশীল ও সময়োপযোগী, যা এখনও অব্যাহত।

প্রধানমন্ত্রী পৃথক বাণীতে বলেন, সংবাদপত্রের স্বাধীনতার সুরক্ষা, মান নিশ্চিতকরণ, সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ প্রদানসহ নানাবিধ কর্মপ্রয়াসের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল এখন অধিকতর কার্যকর ও সময়োপযোগী ভূমিকা পালন করছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার তথ্য অধিকার আইন প্রণয়ন ও তথ্য কমিশন প্রতিষ্ঠা করেছে। জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা ২০১৪ প্রণয়ন করা হয়েছে। বেসরকারি খাতে ৪৪টি টেলিভিশন, ২২টি এফএম রেডিও এবং ৩২টি কমিউনিটি রেডিও চ্যানেলের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে সারাদেশ থেকে প্রতিদিন ৪৮৫টি দৈনিক পত্রিকা প্রকাশিত হয়। আওয়ামী লীগ সরকার সব সময়ই দেশে গণমাধ্যমের বিকাশে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে।

কাউন্সিলের সচিব (যুগ্ম সচিব) শ্যামল চন্দ্র কর্মকার বলেন, সকাল ১০টায় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, তথ্য মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচাপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ কেক কেটে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস উদযাপনের সূচনা করবেন।

তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সংবাদপত্রের স্বাধীনতা রক্ষা ও মান উন্নয়নের উদ্দেশ্যে ১৯৭৪ সালে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল আইন প্রণয়ন করেন। ওই বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি আইনটি গেজেট আকারে প্রকাশ হয়। তাই বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিনটিকে ‘বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস’ হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নেয়। গত বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি প্রথমবারের মতো অনাড়ম্বরভাবে দিবসটি পালন করা হয়।