দুর্নীতিবাজদের শাস্তি পেতেই হবে : দুদক চেয়ারম্যান

নিউজ ডেস্ক:  দুর্নীতি সরকারের সব আর্জনকে ম্লান করে দিচ্ছে উল্লেখ করে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, দুর্নীতিবাজদের শাস্তি পেতেই হবে। তাদের কোন ছাড় নেই বলেও জানান তিনি।

দুদক চেয়ারম্যান চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে “দুর্নীতিমুক্ত সরকারি সেবা, দুর্নীতির অভিযোগের প্রকৃতি” শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন। সভায় চাঁদপুর জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

ইকবাল মাহমুদ বলেন, দুর্নীতি, তদবিরবাজ ও ক্ষমতার অপব্যবহারকারীদের বিশেষ প্রভাব নির্মূল করা প্রয়োজন। তদবিরবাজরাই সবচেয়ে বড় দুর্নীতিবাজ। তাদের প্রতিরোধ করতে হবে।

তিনি বলেন, দুর্নীতির যে ব্যপকতা রয়েছে এভাবে চললে অনেক অর্জনই বিসর্জন হয়ে যাবে। আমরা এ অবস্থার উত্তরণ ঘটাতে চাই।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে শুধু শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে দোষ দিয়ে লাভ নেই। এক্ষেত্রে অভিভাবক, শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা, সকলকেই দায় নিতে হবে।
তিনি বলেন, ২০১৭ সালে ফাঁদ মামলায় প্রায় ৩০ জন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কমিশনের গোয়েন্দা ইউনিট গঠন করা হয়েছে। এবছর গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতেই মাঠ পর্যায়ে ঘুষখোর দুর্নীতিবাজদের আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করা হবে। তবে কোন অবস্থাতেই নিরীহ কর্মকর্তাদের হয়রানি করার সুযোগও দেয়া হবে না।

নৈতিকতা এবং মূল্যবোধ বিকাশের লক্ষ্যে দুর্নীতি দমন কমিশন দেশের প্রায় ২২হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে সততা সংঘ গঠন করেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

জেলা প্রশাসক মো. আব্দুস সুবর মন্ডলের (যুগ্ম সচিব) সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে চাঁদপুর জেলার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা আক্তার, মতলব দক্ষিণ উপজেলার চেয়ারম্যান, উপ পরিচালক ইসলামিক ফাউন্ডেশন, শাহরাস্তি উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. ইলিয়াছ ডিডি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।