কারমাইকেল কলেজে অধ্যক্ষের অপসারণ দাবিতে ভবনে তালা

নিউজ ডেস্ক: রংপুর কারমাইকেল কলেজে অধ্যক্ষর অপসারণ দাবিতে প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝোলানোর পাশাপাশি কালো ব্যাজ ধারণ করে কর্মবিরতি ও অবস্থান ধর্মঘট পালন করছে শিক্ষক পরিষদ।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে শিক্ষকরা অধ্যক্ষর কার্যালয়ের সামনে ওই কর্মসূচি পালন করছেন।

শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদককে ‘অপমান করার’ প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার শিক্ষক পরিষদ জরুরি বৈঠক করে এ কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেয়।

এদিকে শনিবার শিক্ষক পরিষদ প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করলেও অধ্যক্ষ ড. আবদুল লতিফ মিয়া এদিন কলেজে আসেননি। তিনি ছুটিতে রয়েছেন বলে জানা গেছে।

শিক্ষক পরিষদের নেতারা জানান, বৃহস্পতিবার ছিল ইতিহাস বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের কর্মশালা। কর্মশালায় বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানরাও উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালা চলাকালে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সামনেই শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কারমাইকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক আখতারুজ্জামান চৌধুরীকে কলেজ অধ্যক্ষ অপমান করেন। এ ঘটনায় শিক্ষক পরিষদ জরুরি বৈঠক করে অধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আবদুল লতিফ মিয়ার অপসারণ দাবি করে। অন্যথায় শনিবার থেকে প্রশাসনিক ভবনে তালা, ক্লাস বর্জন ও কালো ব্যাজ ধারণ কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নেয় এবং সে অনুযায়ী শনিবার থেকে তারা তাদের কর্মসূচি পালন করছে।

এদিকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের একাংশ অধ্যক্ষ ড. আবদুল লতিফ মিয়ার অপসারণ দাবিতে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।

এ বিষয়ে শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আখতারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ‘সকলের সামনে আমাকে অধ্যক্ষ মহোদয় অপমান করেছেন। তিনি বরাবরই শিক্ষকদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেন না। এসব নানা কারণে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি অধ্যক্ষর অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।’

কর্মসূচিতে শিক্ষক পরিষদ নেতাদের মধ্যে বক্তব্য দেন উপাধ্যক্ষ আবদুর রাজ্জাক, দিলীপ কুমার রায়, সফিয়ার রহমান, মিজানুর রহমান, শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।