কমলাপুর রেলস্টেশনে পা হারালেন রুবিনা

পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ কমলাপুর রেলস্টেশনের চার নম্বর প্ল্যাটফর্মে রেললাইনের ওপর দিয়ে হেঁটে পাঁচ নম্বর প্ল্যাটফর্মে যাওয়ার সময় ট্রেনের ইঞ্জিনে দুই পা কাটা পড়ে মারাত্মক আহত হয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী রুবিনা আক্তার (২২)। রবিবার (২৮ জানুয়ারি) বেলা দেড়টার দিকে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, একটি ইঞ্জিন ঘোরানোর সময় ওই ছাত্রী তার নিচে চাপা পড়েন। রুবিনা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কল্যাণ বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্রী। তাঁকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে রেলওয়ে পুলিশ।

তিনি পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার শান্তিনগর গ্রামের মৃত রবিউল ইসলামের মেয়ে। ঢাকার সদরঘাট এলাকায় একটি মেসে থেকে পড়াশোনা করছেন। গ্রামের বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশ্যে কমলাপুরে যান তিনি।

আহত রুবিনা জানান, তিনি মাথা ঘুরে পড়ে গিয়েছিলেন। রেলওয়ে পুলিশের ওসি জানান, বেলা দেড়টার দিকে মেয়েটি ৪ নম্বর প্ল্যাটফর্মের নিচ দিয়ে (রেললাইনের ওপর দিয়ে) হেঁটে ৫ নম্বর প্ল্যাটফর্মে যাচ্ছিল। এ সময় একটি ইঞ্জিন ঘোরানোর সময় মেয়েটি তার নিচে পড়ে। তাঁর দুটি পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। মেয়েটিকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে রেলওয়ে পুলিশের কনস্টেবল মো. ইউনুস বলেন, বেলা দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। বেলা তিনটার দিকে তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসি।