বুড়িমারী সীমান্তে বাংলাদেশি কিশোর নিহত

নিউজ ডেস্ক: ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) নির্যাতনে মঞ্জুরুল আহম্মেদ (১৮) নামে এক বাংলাদেশি কিশোর নিহত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তার বাড়ী লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নে। পিতার নাম আসাদুল ইসলাম (শহিদুল) ।

জানা গেছে, রবিবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে সীমান্তের ৮৩৬ নম্বর মেইন পিলারের ৬ নম্বর সাব পিলারের নিকট দিয়ে উভয় দেশের গরু ব্যবসায়ীদের সহায়তায় গরু আনার সময় ভারতীয় ৬১ বিএসএফ কোচবিহার ব্যাটালিয়ন, খড়খড়িয়াবাড়ী ক্যাম্পের টহলরত সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে। এ সময় অন্যান্যরা পালিয়ে গেলেও মঞ্জুরুলকে বিএসএফ আটক করে বেধম মারপিটসহ শারীরিক নির্যাতন করে অর্ধমৃত অবস্থায় সীমান্তে ফেলে দেয়। পরে তার সঙ্গীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথেই মারা যায় মঞ্জুরুল।

পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকে্রর আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রফিকুল ইসলাম জানান, তাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখম, আঘাত ও নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে।

বাংলাদেশ বর্ডারগার্ড রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের বুড়িমারী ক্যাম্প কমান্ডার ওবাইদুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে বিএসএফকে কড়া প্রতিবাদ জানিয়ে পত্র প্রেরণ করে পতাকা বৈঠকের আহ্বান জানানো হয়েছে।