পরিকল্পিতভাবে সাম্প্রদায়িকতা বিস্তারের পাঁয়তারা চলছে: সমাজকল্যাণমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় পরিকল্পিতভাবে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন জায়গায় প্রতিমা ভাংচুরের মতো উদ্বেগজনক ঘটনা ঘটে চলেছে।

অথচ এদেশের মানুষ অসাম্প্রাদায়িক এবং পরস্পর পরস্পরের উৎসবকে নিজেদের উৎসব বলেই মনে করে। ধর্ম যার যার উৎসব সবার এ মানসিকতায় সকল উৎসবকে আনন্দে ভরে তুলতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

সরস্বতী পূজা- ২০১৮ উপলক্ষে ঢাকায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ এবং টিএন্ডটি স্কুল এন্ড কলেজ কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পূজামণ্ডুপ ও পূজা অনুষ্ঠান পরিদর্শন করেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

অনুষ্ঠানে সমাজকল্যাণমন্ত্রী বলেন ‘মুক্তিযুদ্ধের পর ধর্মনিরপেক্ষতার কথা যদিও লিপিবদ্ধ ছিল কিন্তু কিছু মানুষ সেখানে সাম্প্রদায়িকতার বিষ ঢেলে দিয়েছে। এখনো ধর্মের ভেদাভেদ সৃষ্টি করতে একশ্রেণির মানুষ উঠে পরে লেগেছে।

সাম্প্রতি আমাদের দেশেও ধর্মীয় সহিংসতার মতো ঘটনাও ঘটে গেছে। আমাদের পাশর্বর্তী দেশ ভারতেও হিন্দু মৌলবাদী শক্তি সেখানকার ধর্মীয় সম্প্রীতিতে আঘাত হানছে। এগুলো পৃথিবীর কোনো সভ্য দেশেই কাম্য নয়।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ ও টিএন্ডটি স্কুল এন্ড কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্য ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।